প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমার মন্ত্রী-এমপি হওয়ার বয়স নেই: ডা. জাফরুল্লাহ

সাব্বির আহমেদ : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ড. কামাল হোসেনের মতো তিনিও মন্ত্রী এমপি হতে চান না। সেই বয়সও নেই। আবার শুধু সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনও তাদের লক্ষ্য নয়। নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট যদি জিতে এবং বিএনপির প্রার্থীরাই যদি বেশি ক্ষমতাসীন হন তবে রাজনীতির কোনো গুণগত পরিবর্তন হবে না।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিতে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

জাফরুল্লাহর মতে, বিএনপি ও আওয়ামী লীগ দুই দলই ডানপন্থী রাজনীতি করে। যদিও এই দুই দলে অনেক ভালো ক্লিন মানুষও রয়েছেন। কিন্তু সংখ্যাগরিষ্ঠভাবে বিএনপি যাকে তাকে প্রার্থী করলে তা মানা হবে না। কারণ বিএনপির ওপর ভালো রাজনীতির সেই আস্থা নেই। ফলে ড. কামালের মতো তিনিও চান রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন আনার জন্য ক্লিন ইমেজের নির্লোভ ও মেধাবী প্রার্থী প্রয়োজন।

তিনি বলেন, রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন আনতে ঐক্যফ্রন্ট বদ্ধপরিকর। এ জন্য ক্লিন ইমেজের নির্লোভ ও মেধাবী প্রার্থী বাছাই আমাদের মূল লক্ষ্য হবে। এক্ষেত্রে কোনো ধরনের ছাড় নয়।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এই নেতা বলেন, ‘দু-এক দিনের মধ্যেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী তালিকায় মেধাবী ও ক্লিন ইমেজের অনেক মুখ দেখা যাবে। চমক অপেক্ষা করছে।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি একচেটিয়া বড় দল হিসেবে প্রার্থী দিবে সংখ্যা বিচারে এটা চলবে না। এ নিয়ে ঐক্যপ্রক্রিয়া গঠনের সময়ই কথা হয়েছিল। এখন মেধাবী ও যোগ্য প্রার্থীকে মনোনয়ন দিতে হবে। বিএনপিকে কথা রাখতে হবে। কারণ আমরা আওয়ামী লীগকে সরিয়ে বিএনপিকে ক্ষমতায় বসানোর এজেন্ডা নেইনি। চাই রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন আসুক।’

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘বিএনপির সঙ্গে এসব বিষয়ে আলাপ চলছে। কামাল হোসেনের মতো তিনিও বেশ কিছু প্রার্থীর কথা জানিয়েছেন বিএনপি নেতাদের। বিএনপিকেও সেসব ক্ষেত্রে ছাড় দিতে হবে। এসব মেধাবী প্রার্থীর তালিকা দু-এক দিনের মধ্যেই চূড়ান্ত হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ