প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানা বন্ধের আশঙ্কা

হ্যাপি আক্তার : জনবলের অভাবে ব্যাহত হচ্ছে দেশের বৃহত্তম সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার কার্যক্রম। মঞ্জুরি শ্রমিকের মাত্র ৩৩ শতাংশ দিয়ে কেনো রকমে চলছে নির্মাণ কাজ। এ অবস্থা চলতে থাকলে অচিরেই কারখানা বন্ধ হওয়ার আশঙ্কা করছেন শ্রমিক নেতারা। অবশ্য, প্রয়োজনীয় লোকবল নিয়োগের আশ্বাস দিয়েছেন রেলওয়ে কারখানার কর্মকর্তারা। সূত্র : সময় টেলিভিশন

সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় মঞ্জুরি পদে ৩ হাজার ১৭১ জনের মধ্যে বর্তমানে কমরত রয়েছেন ১ হাজার ১৩ জন শ্রমিক। আর প্লান্টস ও মেশিনারিজ রয়েছে ৭৮৭টি।

ব্রিটিশ আমলে নীলফামারীর সৈয়দপুরে প্রতিষ্ঠা করা হয় দেশের সবচেয়ে বড় রেলওয়ে কারখানা। সে সময় এখানে নির্মাণ করা হতো প্রায় ২ হাজার রকমের রেলওয়ের যন্ত্রাংশ। কিন্তু এখন তা নেমে এসেছে মাত্র ২’শতে।

শ্রমিকরা বলছেন, ১৯৯১-৯২ সালে গোল্ডেন হ্যান্ডশেক দিয়ে বিদায় নেন ৫৬৩ জন দক্ষ কারিগর। এরপর থেকেই দক্ষ কারিগরের অভাব রয়েছে কারখানাটিতে। যতগুলো প্লান্টস ও মেশিনারিজ রয়েছে তার সিকি ভাগও নেই শ্রমিক। এতে ধীরে ধীরে নিস্তেজ হয়ে পড়েছে কারখানার কার্যক্রম। অচিরেই কারখানাটি বন্ধের আশঙ্কা করছেন তারা।

অবশ্য, জনবল সংকটের কথা স্বীকার করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন রেলওয়ে কারখানার কর্মকর্তারা।
নীলফামারীর সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় কর্মকর্তা মুহাম্মদ কুদরত-ই-খুদা বলেন, ট্রেইনি অ্যাপ্রেনটিস নিয়োগের প্রক্রিয়া বিদ্যমান রয়েছে। এই নিয়োগগুলো শেষ হলে আমাদের আর জনবল সমস্যা থাকবে না। সেই ক্ষেত্রে লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী আমাদের আউটকাম দিতে সক্ষম হব।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত