প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চিকিৎসকের বাথরুমে গৃহকর্মীর মরদেহ

জাগো নিউজ: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক ভবন থেকে আকলিমা আক্তার (১৪) নামে এক কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় বাথরুমের দরজা ভেঙে মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

আকলিমা আক্তার নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার পশ্চিম বিল কাকরাকান্দা গ্রামের জাহের আলীর মেয়ে।

পুলিশ জানায়, আকলিমা প্রায় ২ বছর যাবৎ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মাহমুদা আক্তার শিরিনের বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করে আসছিল। বৃহস্পতিবার বিকেলে সে বাথরুমে গিয়ে ওড়নার ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে ওই চিকিৎসক দাবি করেছেন।

খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভেতরে কৃষ্ণচুড়া নামের চারতলা ভবনের দ্বিতীয় তলার বাথরুমের দরজা ভেঙে পুলিশ ওই গৃহকর্মীর মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহ উদ্ধারের সময় আকলিমার দু’ পা মেঝেতে এবং হাঁটু বাকা ছিল।

স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, ওই হাসপাতালের এক চিকিৎসকের সহকারীর সঙ্গে আকলিমার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমের সূত্র ধরে কোনো কারণে সে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে।

এ বিষয়ে ডা. মাহমুদা আক্তার শিরিন জানান, আকলিমার প্রেমের বিষয়টি এখন বিভিন্ন জনের কাছে শুনতে পাচ্ছি। কিন্তু আমি নিশ্চিত না। সে বাথরুমে গিয়ে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মাহফুজ জানান, আত্মহত্যার কারণ সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কুমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ