প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারস্যামের জন্য অধিক আসন চান বি. চৌধুরী

মোঃ ইউসুফ আলী বাচ্চু : ভারসাম্যের রাজনীতি প্রতিষ্ঠায় শরিক দলগুলোকে অধিক আসন দেয়ার দাবি জানিয়েছেন বিকল্পধারার ও যুক্তফ্রন্টের প্রেসিডেন্ট এ কি ইউ এম বরুদ্দোজা চৌধুরী।

বুধবার বিকল্পধারার অস্থায়ী নির্বাচনী ক্যাম্পে মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারীদের স্বাক্ষাতকার সমাপ্ত অনুষ্ঠানে বি. চৌধুরী বলেন, যে দল সরকার গঠন করবে, সে দলকে অধিক সংখ্যক আসন দিয়ে রাজনীতির ভারসাম্য করতে হবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মহাজোটের কাছে কয়টি আসন চান এ বিষয়ে তিনি বলেন, এই মুহুর্তে এটা বলবো না। পরে তিনি বলেন, আমরা রাজনীতির সংশোধন আনতে চাই। ব্যালেন্স রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করতে চাই৷ কোন দল একক সিদ্ধান্তে যেন স্বেচ্ছাচারিতা করতে না পারে বিকল্পধারা সে ধারার রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করবে বলে দাবি করেছেন প্রবীণ এই রাজনীতিবিদ।

নির্বাচনী মাঠে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, বিদেশের পর্যবেক্ষকদের এক দিনের জন্য নয়, আসতে হবে এক রিজানেবল টাইমের জন্য। যেটা নির্বাচনের কয়ক সপ্তাহ আগে হতে হবে। নির্বাচনের সময়ে তারা যেখানে যেতে চায়, যেতে দিতে হবে।

নির্বাচনের পরে রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষনের জন্য তাদেরকে বেশ কয়কদিন থাকার অনুমতি দেয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি। পরে তিনি মহাজোটে যাবার বিষয়ে বলেন, মোটামুটি আলোচনা চলছে। আমাদের জোটে ভালোভালো প্রার্থী রয়েছে। আমরা আলোচনায় সে সব কথা জানিয়েছি।

জনগন নির্বাচনী মেজাজে রয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে কোন ষড়যন্ত্র হুমকি ধামকি দিলে নির্বাচন নিয়ে জনমনে সন্দেরহের সৃষ্টি হবে। বিরোধী দলকে এ কথা বুঝতে হবে।

ঐক্যফ্রন্টে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, নির্বাচন ঠেকিয়ে দেয়া হবে, ভোটে বাধা দেয়া হবে এমন কোন আভাস দেয়া হলে ইতিহাস ক্ষমা করবে না। তা হবে ইতিহাসের নির্মন অধ্যায়। পরে তিনি জানান, সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে বিভিন্ন দাবি নিয়ে তারা রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষাত চেয়ে আবেদন কিরেছেন। কিন্তু এখনো সাড়া পান নাই।

আগামী কয়েকদিনের মধ্যে নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করার ঘোষণা দিয়ে বি. চৌধুরী বলেন, নতুন ভোটারের সংখ্যা অনেক বেশি। তারা যেন নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারে। নিরপেক্ষ সুন্দর নির্বাচন দেখতে পারে, তার ব্যবস্থা করতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ