প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস বিকৃতির পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্তে বাড়তি সময় লাগছে

আদম মালেক :বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস বইয়ের বিকৃতি জটিল ও স্পর্শকাতর। তাছাড়া বইটি তদন্তে হাইকোর্টের চিঠিও পৌঁছেছে দেরীতে। তার ওপর অর্থমন্ত্রণালয়ের নিয়মিত কাজও চালিয়ে যেতে হয়। এজন্য এই বইটির তদন্তে আরও ১ মাস সময় লাগছে বলে অর্থমন্ত্রলয় সূত্রে জানা যায়।

প্রসঙ্গত, ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ গ্রন্থে কেন্দ্রীয় ব্যাংকসহ বাণিজ্যিক ব্যাংক প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান ও কৃতিত্বের বিষয়টি যথাযথভাবে উল্লেখ করা হয়নি। কিন্তু অনাকাঙ্খিতভাবে একাধিক ছবি রাখা হয়েছে পাকিস্তানের স্বৈরশাসক আইয়ুব খান ও আবদুল মোনেম খানের।

অর্থমন্ত্রণালয়ের গঠিত কমিটির এক দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, হাইকোর্টের নির্দেশ সম্পর্কিত চিঠি পৌঁছাতে দেরি হওয়া ও নিয়মিত কাজের পাশাপাশি এ কাজ হচ্ছে বলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তদন্ত কাজ শেষ করা যায়নি। পাশাপাশি ইতিহাস বিকৃতি সম্পর্কিত কাজটি খুবই জটিল ও স্পর্শকাতর হওয়ার কারণে পুঙ্খানুপুঙ্খ বিষয় বিবেচনায় আনতে হচ্ছে। তদন্ত কাজ নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ না হওয়ার এটিও একটি কারণ। এসব কারণে আরও এক মাস সময় নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, গত ২ অক্টোবর ইতিহাস বিকৃতির ঘটনা তদন্তে হাইকোর্ট কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন। বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ গ্রন্থে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি অন্তর্ভুক্ত না করে পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান এবং পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নরের মোনেম খানের ছবি অন্তর্ভুক্ত করে ইতিহাস বিকৃত করা কেন আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না-তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। অর্থ সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, নির্বাহী ব্যবস্থাপক শুভঙ্কর সাহা ও প্রচার-প্রকাশনা বিভাগের আবুল কালাম আজাদকে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। পরবর্তীতে অর্থমন্ত্রণালয়ে এ সম্পর্কিত চিঠি এসে পৌঁছালে একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়।

গত ২ অক্টোবর অর্থমন্ত্রণালয় এই কমিটি গঠন করে। এরইমধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। কমিটির প্রধান করা হয় ডেপুটি গর্ভনর আহমেদ জামালকে। কমিটিতে একজন নির্বাহী পরিচালক ও একজন মহাব্যাবস্থাপকও রয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত