প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সুষ্ঠু নির্বাচনের আপ্রাণ চেষ্টা করছে নির্বাচন কমিশন : শামসুল আরেফিন

আশিক রহমান : গবেষক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক মেজর (অব.) এ এস এম শামসুল আরেফিন বলেছেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও সবার কাছে গ্রহণযোগ্য একটি নির্বাচন করার আপ্রাণ চেষ্টা করছে নির্বাচন কমিশন। একটি ভালো নির্বাচনের প্রচেষ্টা তাদের কর্মকা-ের মধ্যে দেখা যাচ্ছে। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি আরও বলেন, কমিশন এককভাবে চেষ্টা করলে কাক্সিক্ষত নির্বাচন হবে না, সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে সরকারি দলকে যেমন এগিয়ে আসতে হবে, দায়িত্ব পালন করতে হবে, বিরোধীদলগুলোকেও সহযোগিতার হাত বাড়াতে হবে। সম্মিলিত প্রয়াসে একটি প্রত্যাশার নির্বাচন আমরা পেতে পারি।

এক প্রশ্নের জবাবে এই বিশ্লেষক বলেন, আসন্ন নির্বাচন সুষ্ঠু হবে বলেই আমি মনে করি। কতোটা সুষ্ঠু হবে তা নির্ভর করে রাজনৈতিক দলগুলোর কর্মকা-ের ওপর। দলগুলো যদি দায়িত্বশীল আচরণ করে তাহলে জনপ্রত্যাশা অনেকাংশেই মিটবে। সহনশীল ও সংযত আচরণ সুষ্ঠু নির্বাচনের ক্ষেত্রটি নিশ্চিত হবে। এখন দেখার বিষয় কে, কীভাবে দায়িত্ব পালন করে।

তিনি বলেন, এখনো পর্যন্ত আওয়ামী লীগের বড় কোনো ভুল চোখে পড়ছে না। নির্বাচনকে সামনে রেখে তারা অনেক সতর্ক। সজাগ। কথাবার্তা, আচরণ ও সিদ্ধান্তে। সব বিষয়ে সচেতন থাকছে। অহেতুক কোনো বিতর্কে নিজেদের ভাবমূর্তি ক্ষতি করতে চায় না। যে উন্নয়ন আওয়ামী লীগ সরকার বিগত দিনগুলোতে করেছে তার মূল্যায়ন সাধারণ বা ভোটাররা করবে বলেই মনে করি আমি। আওয়ামী লীগের শাসনামলে অনেক উন্নয়ন হয়েছে, যা মানুষকে স্বস্তি দিয়েছে অনেকখানি।

তিনি আরও বলেন, নিঃসন্দেহে আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি। তাদের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে। বাংলাদেশ পেয়েছি আমরা। মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান দেয়ার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। নির্বাচনে দলের মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে তা বিবেচনা নিশ্চয় করবে। কারণ যতোবেশি দেশপ্রেমিক মানুষ রাজনীতিতে আসবেন, জনপ্রতিনিধি হবে ততো বেশি মঙ্গল হবে সাধারণ মানুষের জন্য। আওয়ামী লীগ যেহেতু সাধারণ মানুষের দল, তাদের কল্যাণ যেভাবে হবে সেটি নিশ্চয়ই অগ্রাধিকারের মধ্যে রাখবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ