প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বুদ্ধিজীবী দিবসের নাটক ‘সাড়ে তিন খানা চিঠি’

আবু সুফিয়ান রতন : অভিনেত্রী শমী কায়সারের গল্প অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে নাটক ‘সাড়ে তিন খানা চিঠি’। একাত্তরের ভয়াবহ বুদ্ধিজীবী হত্যার ঘটনা নাটকটির প্রধান উপজীব্য। শমী কায়সারের গল্প অবলম্বনে এটি নির্মাণ করছেন চয়নিকা চৌধুরী। এ প্রসঙ্গে শমী কায়সার জানান, ‘গল্পের বেশিরভাগ অংশ সত্য ঘটনা থেকে নেওয়া।

একাত্তরের ১৪ ডিসেম্বর, যেদিন বাবাকে [শহীদুল্লা কায়সার] পাকিস্তানি বাহিনীরা ধরে নিয়ে যায়, সেদিনের অনুভূতির জায়গা থেকে গল্পটি লিখেছি। নতুন প্রজন্মের কাছে ১৪ ডিসেম্বরের ঘৃণ্য অধ্যায়কে সামনে নিয়ে আসার জন্য গল্পটি ছোটপর্দায় তুলে ধরা হচ্ছে।’ এর গল্পে দেখা যাবে, ‘একাত্তরে পাকিস্তানিরা বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে যাওয়ার সময় নাটকের প্রধান চরিত্র শমীর বাবাকেও ধরে নিয়ে যায়। এরপর তার বিয়ে হয় ধনী পরিবারে। যারা কিনা ধনসম্পদ, টাকা-পয়সা, স্বর্ণ-গহনার বাইরে আর কিছুই চিন্তা করে না।

নাটকে শমীর শ্বশুরবাড়ির লোকজন মুক্তিযুদ্ধকে উপেক্ষা করে উল্টো ‘গণ্ডগোল’ বলে আখ্যায়িত করে। এদিকে তার শ্বশুর ছিল রাজাকার। ঘটনার পরিক্রমায় ১৪ ডিসেম্বর শমীর বাবাকে ধরে নিয়ে যায়। কিন্তু প্রতি বছর এ দিনেই তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন বাড়িতে নানা রকম পার্টি করে। যদিও তার স্বামী সব সময় তার পাশে থেকে সহযোগিতা করে। এ রকম একটা টানাপড়েন সম্পর্ক নিয়ে এগিয়ে যায় নাটকের গল্প।

নাটকের নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘শমী কিন্তু এখন আর আগের মতো অভিনয় করেন না। বছরে দু-একটা কাজ করেন। নিজের লেখা গল্পে তিনি দুর্দান্ত অভিনয় করেছেন। এরই মধ্যে নাটকের তিনদিন শুটিং হয়েছে। বাকি শুটিং বধ্যভূমিতে করব। নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন আবুল হায়াত, শর্মিলী আহমেদ, শমী কায়সার, মাহফুজ আহমেদ, আজম খান এবং শিশুশিল্পী নাদীভ। আগামী ১৪ ডিসেম্বর নাটকটি চ্যানেল আইয়ে দুপুর ৩টা ৫ মিনিটে প্রচার হবে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত