প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে চিঠি দিবে ইসি
`রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্বাচন নিয়ে ব্রিফ করেছে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর’

সাইদ রিপন: জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরকারি দলের পক্ষে ভূমিকা রাখার জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে ডেকে নিয়ে ব্রিফ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। তবে পরবর্তীতে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের যেন আর না ডাকা হয় সেজন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে চিঠি দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

মঙ্গলবার বিএনপির পক্ষ থেকে দলের যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের কাছে এই অভিযোগ জমা দেন। পরবর্তীতে ইসি সচিব সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

চিঠিতে বলা হয়েছে, রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ডেকে নেওয়ার বিষয়টি গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ। বিএনপি এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, রিটার্নিং কর্মকর্তা ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের টেলিফোনের কললিস্ট পরীক্ষা করলে এবং ওই দিনের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিসি ক্যামেরাতে ধারণ করা ফুটেজ পরীক্ষা করলে অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত হবে। তফসিল ঘোষণার পর ভোট গ্রহণ কর্মকর্তারা নির্বাচন কমিশনের অধীন। এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে এসব কর্মকর্তাদের কীভাবে ডেকে পাঠানো হলো। বিষয়টি সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের অন্তরায়। এ সময় মোয়াজ্জেম হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচনে এখন আর ‘সমতল’ পরিস্থিতি বলে কিছু নেই।

রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রধানমন্ত্রীর অফিসে ডেকে নিয়ে সভা করা হয়েছে। এই অবস্থা চললে আমরা থাকব গিরিখাতে, আর ওনারা থাকবেন পর্বতশৃঙ্গে।

অন্যদিকে ইসি সচিব বলেছেন, নির্বাচন যাতে প্রশ্নবিদ্ধ না হয় সেজন্য মাননীয় কমিশন একটি নির্দেশনা দিয়েছে। সবগুলো বিষয় মিলিয়ে সরকারকে আমরা একটা পত্র দেব। রির্টানিং কর্মকর্তার নির্বাচন কমিশনের অধীন হওয়ায় তাদের যাতে অন্য কোনোভাবে কেউ ডেকে সভা না করা হয়। এ বিষয়ে কমিশন একটা সিদ্ধান্ত হয়েছে সরকারের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এবং অন্যান্য মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেবো।

তিনি বলেছেন, কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে নির্বাচন কমিশন তা তদন্ত করে দেখবে কেন তার বদলি চায়। সবকিছু বিবেচনা করে ইসি এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে রির্টানিং কর্মকর্তাদের ডেকে নিয়ে সভা করা হয়েছে, এট আচরণবিধি লঙ্ঘন কিনা- প্রশ্নে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা অভিহিত নই। যেহেতু একটি অভিযোগ এসেছে, আমরা খতিয়ে দেখব। সম্পাদনা: হুমায়ুন কবির খোকন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ