Skip to main content

বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে সাকিবের আগমন দলের জন্য ইতিবাচক : মোস্তফা মামুন

তানজিনা তানিন : বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজে সাকিবের খেলার সিদ্ধান্ত সিরিজ জয়ের জন্য ইতিবাচক ফলাফল বয়ে আনবে বলে আশাবাদী বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোস্তফা মামুন। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে টেস্ট খেলা নিয়ে কিছুটা শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি। বাংলাদেশ শর্ট ভার্সন খেলায় পরপর জয় লাভ করলেও টেস্ট ক্রিকেটে তুলনামূলক জয়লাভ করছে না। এর কারণ উল্লেখ করে তিনি বলেন, অন্যান্য দেশের মতো আমাদের ক্রিকেট সংস্কৃতি ও ইতিহাসের সূচনা টেস্ট খেলা দিয়ে হয়নি। আমাদের ক্রিকেটের যাত্রা হয়েছে ওয়ানডে ভার্সনে। ধীরে ধীরে টি-টুয়েন্টি ও ওয়ানডে ম্যাচে উত্তরোত্তর সাফল্যের ফলে আমাদের টেস্ট খেলার দিকে কর্মকর্তা, মিডিয়া কেউ গুরুত্ব দেয়নি। শর্ট ভার্সনে খেলে বেড়ে গেছে খেলোয়াড়দের গ্লেমার। তাই তারাও উল্লেখযোগ্য গুরুত্ব দিচ্ছেন না লং ভার্সন খেলায়। যার ফলাফল সম্প্রতি বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজে দেখেছি। টেস্টে আমাদের খেলোয়াড়রা এখনও অভ্যস্ত না। কম অনুশীলন এর অন্যতম একটি কারণ বলে জানান তিনি। এ প্রসঙ্গে মোস্তফা মামুন আরও বলেন,নতুন বল, স্পেস, বেশি উচ্চতার বল, বেশি বাউন্স বল থাকলে খেলোয়াড়রা ভালো খেলতে পারছেন না। আসন্ন সিরিজের জন্য আশার কথা হলো, আমাদের খেলোয়াড়রা দেশের উইকেটে খেলে অভ্যস্ত। ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলোয়াড়রা বাউন্স বল বেশি করে। আমাদের উইকেটে বাউন্স কম হয়। বাংলাদেশে সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে, তাই খুব একটা সমস্যা হবে না বলে ধারণা করছেন তিনি। কিন্তু খেলোয়াড়দের এই প্রবণতা কাটিয়ে ওঠা অতিব জরুরি বলেও মন্তব্য করেন মোস্তফা মামুন। টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশ দলের অগ্রগতির লক্ষ্যে তিনি বলেন, টপ খেলোয়াড়দের টেস্ট খেলায় শর্ট ভার্সন খেলার কৌশল ত্যাগ করতে হবে। ওয়ানডে খেলায় যে গুরুত্ব দেন, সেই গুরুত্বসহ অনুশীলন টেস্ট খেলায় করা উচিত। কর্তৃপক্ষের উচিত এমন খেলোয়াড় বাছাই করা যারা টেস্ট খেলায় পারদর্শী। তাছাড়া বেশি বেশি টেস্ট খেলার আয়োজন করা উচিত বলে মনে করেন তিনি।