প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাতেও সরব বিএনপির গুলশান কার্যালয়

ডেস্ক রিপোর্ট : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে সরব সব রাজনৈতিক দল। দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত করতে রীতিমত হিমশিম খাচ্ছে হাই-কমান্ড।

রাজপথের বিরোধী দল বিএনপিতেও চলছে তোড়জোড়। কার হাতে ধানের শীষ ‘নিরাপদ’ সেটি বাছাইয়ে গতকাল রোববার থেকে নেয়া হচ্ছে সাক্ষাৎকার। এই সাক্ষাৎকারে যুক্ত আছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান।

লন্ডন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সঙ্গে কথা বলছেন। দিচ্ছেন দিক-নির্দেশনা। যদিও এ নিয়ে বিতর্কের জন্ম হয়েছে।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নির্বাচন কমিশনে দণ্ডিত ব্যক্তির এ ধরনের কর্মকাণ্ডকে আচরণবিধির লঙ্ঘন দাবি করে ব্যবস্থা নিতে লিখিত দিয়েছে। সোমবার অবশ্য ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, তারেক রহমানের অনলাইনের এসব কার্যক্রম আচরণবিধি লঙ্ঘনের মধ্যে পড়ে না। সুতরাং তারা এ বিষয়ে তারেকের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থাও নিতে পারবে না।

বিতর্ক যাই হোক, মনোনয়ন ঘিরে জমে উঠেছে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়। বলা চলে চাঙ্গা নেতাকর্মীরা। রাতভর থাকছে সরব, ভিড়। যেটি বছরের শুরুতে, ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘিরে সুনসানে পরিণত হয়েছিল। ওইদিন রায়ে খালেদা জিয়া দণ্ডিত হলে তাকে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়।

এরপর যা দু’একদিন বৈঠক করেছেন বিএনপির সিনিয়র নেতারা। হয়েছে ২০ দলের বৈঠক। সম্প্রতি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ঘিরেও সরব হয়েছে।

তবে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার ঘিরে একেবারেই বদলে গেছে চিত্র। দিনভর নেতাকর্মীরা সেখানে ভিড় করছেন। রাতেও থাকছেন তারা। বলা চলে সম্ভাব্য দলীয় প্রার্থীর পক্ষে শোডাউন দিচ্ছেন কর্মীরা। অনুসারিদের আসায় নিষেধাজ্ঞা থাকলেও কে শোনে কার কথা? দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের পাশাপাশি কর্মী-সমর্থকদের দৃষ্টিও এখন গুলশানে।

দ্বিতীয় দিনে সোমবার সকাল ১০টা থেকে বরিশাল বিভাগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেয়া হয়। এরপর বিকেল থেকে খুলনা বিভাগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেয়া হচ্ছে।

বিএনপির মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানান, বরিশাল বিভাগের ১৮৩ জনের সাক্ষাৎকার শেষ হয়েছে। এখন খুলনা বিভাগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন।

এর আগে গতকাল প্রথম দিন রোববার সকালে রংপুর বিভাগের ৩৩ আসনে ১৫৮ জন, বিকেলে রাজশাহী বিভাগের ৩৯ আসনের ৩৬৮ জনের সাক্ষাৎকার নেয়া হয়। তাদের সবাইকেই নির্বাচন কমিশনে মনোনয়নপত্র জমা দিতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে এসব নেতাদের বিএনপি মহাসচিব স্বাক্ষরিত প্রত্যয়নপত্র দেয়া হয়।

সব বিভাগের সাক্ষাৎকার শেষ হলে আগামী ৮ ডিসেম্বর প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা হবে বলে বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।

সুত্র : পরিবর্তন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ