প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘আত্মগোপনে’ এরশাদ!

বাংলাদেশ জার্নাল : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনায় অংশ নিতে গণভবনে গিয়েছেন জাতীয় পার্টির প্রতিনিধি দল। দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। ওই প্রতিনিধি দলে নেই দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মো. এরশাদ।

এছাড়া গত দুদিন ধরে গণমাধ্যমের সামনেও আসেননি তিনি। এই অবস্থায় প্রশ্ন উঠেছে এরশাদ কোথায়? এ বিষয়ে জাপা নেতারা মুখ খুলছেন না। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নেতা জানান, অজ্ঞাত স্থানে ‘বিশ্রাম নিচ্ছেন’ জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। গত শনিবার রাতে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) থেকে ছাড়া পেয়ে বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসভবনে ফেরেননি তিনি। এরশাদ কোথায় তা জানতে জাপা মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারকে বার বার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

ক্ষণে ক্ষণে মত বদলের কারণে রাজনীতির বিতর্কিত চরিত্র সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ। ৩০ ডিসেম্বরের একাদশ সংসদ নির্বাচন আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোট করে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিলেও এরশাদ শেষ পর্যন্ত কী করবেন, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে অনেকের।

বিএনপির সঙ্গে জোট করেও ২০০১ সালের নির্বাচনের আগে চার দল ছাড়েন এরশাদ। আবার বিএনপির সঙ্গে আলাপ চালিয়েও ২০০৬ সালে ভোটের আগে যোগ দেন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটে। তিন দিন ‘আত্মগোপনে’ থাকার পর ওই বছরের ১৮ ডিসেম্বর পল্টনে আওয়ামী লীগের মহাসমাবেশে যোগ দিয়ে রাজনীতিতে আলোচনার জন্ম দেন তিনি।

উল্লেখ ২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচনের আগেও এইচ এম এরশাদকে সামরিক হাসপাতালে নেয়া হয়েছিল। সেবার নির্বাচনে যাবেন না বলে ঘোষণা দেয়ার পরই জোর করে সামরিক হাসপাতালে নেয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছিল।

এবারও নির্বাচনের তিনি হাসাপাতালে যাওয়ায় প্রশ্ন উঠেছে। তবে হাসপাতাল থেকে বের হয়ে আড়ালে চলে যাওয়ায় তাকে ফের রহস্য তৈরি হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ