প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিক্ষার্থীর অনুপস্থিতির প্রধান কারণ এমসিকিউর বিলুপ্তি :  অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন

আমিরুল ইসলাম : প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপণী পরীক্ষায় পরীক্ষার্থী অনুপস্থিতির হার বৃদ্ধি পাওয়ার অন্যতম কারণ এমসিকিউ বাতিল হওয়া বলে মনে করেন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন। অনেক পরীক্ষার্থী পাস করার জন্য এমসিকিউ – এর উপর নির্ভরশীল থাকার কারণে এটি বাদ হওয়ায় তারা আর পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনি বলে তিনি জানান।

আলোচনাকালে তিনি বলেন , প্রতিবছরই পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত থাকে তবে এবছর তা কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে যার অন্যতম কারণ হচ্ছে গ্রাম অঞ্চলে পড়াশোনার মান দিনে দিনে আরো খারাপ হয়ে যাচ্ছে। গ্রামে ভালো শিক্ষক নেই। এছাড়া আর্থিক অনটনের কারনে অনেকে ভালোভাবে পড়াশোনা করতে পারেনি বলে ভয়ভীতির কারণে তারা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনি  । পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ না করার ব্যপারে স্কুল কর্তৃপক্ষের কিছুটা উদাসীনতা রয়েছে  বলে তিনি মনে করেন। তারা শিক্ষার্থীদের  ঠিকমতো খেয়াল রাখছে না বলে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

এ বছর ১ লাখ ৬০ হাজার শিক্ষার্থী অনুপস্থিত যা মোট পরীক্ষার্থীর ৪.২৪ শতাংশ উল্লেখ করে তিনি বলেন, গ্রাম অঞ্চলের ৪০ শতাংশ স্কুলের কোনো অনুমোদন নেই। যার কারণে প্রতিষ্ঠানগুলো ভালোভাবে পরিচালিত হচ্ছে না। বিশেষ করে কিন্টারগার্ডেন স্কুলগুলোর পড়াশোনার মান ও শিক্ষকদের মানের অবস্থা খুবই খারাপ । অধিকাংশ কিন্টারগার্ডেন স্কুলেন কোনো অনুমোদন নেই। যার কারণে তাদের মধ্যে কোনো দায়বদ্ধতা ও জবাবদিহিতা নেই। যার ফলে প্রতিবছর শিক্ষার্থীদের পরীক্ষায় অনুপস্থিতির হার বেড়েই চলছে।

এ সমস্যা থেকে উত্তরণের পথ জানতে চাইলে তিনি বলেন , সংশ্লিষ্ট  মন্ত্রণালয়ের ও সরকারের  উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা যারা রয়েছেন  তাদেরকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। নতুন কোনো প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেওয়ার সময় সবকিছু বিবেচনা করে তারপর অনুমোদন দিতে হবে। কোন কোন প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন নেই , সে ব্যাপারে খেয়াল রাখতে হবে। সরকারের অনুমোদনহীন প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাদের ইচ্ছেমতো চলতে দেওয়া যাবে না। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার জায়গা তৈরি করতে হবে । তাহলে এই সমস্যাটির সমাধান হবে বলে জানান তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ