প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সপ্তাহব্যাপী আয়করমেলা শেষ
আদায় হয়েছে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা

আবু বকর : জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এর সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলায় ২ হাজার ৪৬৮ কোটি ৯৪ লাখ ৪০ হাজার ৮৯৫ টাকার কর আদায় হয়েছে। এবারের মেলায় রিটার্ন দাখিল করেছেন ৪ লাখ ৮৭ হাজার ৫৭৩ জন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান। গত বছর রিটার্ন দাখিল করেছিলেন ৩ লাখ ৩৫ হাজার ৪৮৭ জন।

গত বছর মেলায় কর আদায়ের পরিমাণ ছিলো ১ হাজার ৭৯১কোটি ১২ লাখ ৩৭ হাজার ৩১০টাকা। সেবা নিয়েছিলেন ৯ লাখ ৪৪ হাজার ৯০জন। ই-টিআইএন খুলেছিলেন ৬ লাখ ৯২৯ জন।

সোমবার মেলার শেষ দিনে করদাতাদের ঢল নামে। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে করদাতারা আয়কর বিবরণী বা রিটার্ন জমা দেন। করদাতা ও সেবাগ্রহণকারীদের সময় বাড়ানোর দাবি থাকলেও শেষ পর্যন্ত কর্তৃপক্ষ নতুন করে মেলার সময় বাড়াননি।
মেলায় নতুন কর সনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) নেয়াসহ কর সংক্রান্ত সব সেবা মিলেছে। মুক্তিযোদ্ধা,প্রবীণ ও নারীদের জন্য আলাদা বুথসহ বাড়তি সুবিধা হিসেবে যাতায়াতের জন্য ছিলো শাটল বাসের ব্যবস্থা। বাসগুলো চলেছে রাজধানীর টিএসসি,রামপুরা, বেইলি রোড,মতিঝিল,মিরপুর ও উত্তরা রোডে।কোন হয়রানি ছাড়া একই ছাদের নিচে সব সেবা পেয়ে খুশি করদাতারা। তাদের চোখেমুখে খুশি আর গর্বের ছাপ লক্ষ্য করা গেছে।

রাজধানী ঢাকাসহ সকল বিভাগীয় শহরে ৭ দিন, ৫৬ টি জেলা শহরে ৪ দিন,৩২টি উপজেলায় ২ দিন এবং ৭০টি উপজেলায় ১ দিনব্যাপী আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হয়।

মেলায় এবার বাড়তি সংযোজন হিসেবে ছিল অডিও ভিজ্যুয়াল পদ্ধতিতে কর শিক্ষণ। এর মাধ্যমে করদাতারা আধুনিক পদ্ধতিতে কর সংক্রান্ত সব ধরণের সেবা জানতে পারেন। এছাড়া সাত দিনে সাতটি স্কুল বা বিশ্ববিদ্যালিয়ের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয় শিক্ষণ ফোরামে। গতকাল নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কর শিক্ষনে অংশগ্রহণ করে।

১৩ নভেম্বর রাজধানীর বেইলী রোডে অফিসার্স ক্লাবে মেলার উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মহিত। গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় অনুষ্ঠিত হয় সমাপণী অনুষ্ঠান। সে অনুষ্ঠানেও প্রধান আতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী । জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া সমাপণী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

মেলায় ৬ষ্ঠ দিনে কর আদায় হয় ৩৪১ কোটি ২৯ লাখ ৭৩ হাজার ৪৭৬ টাকা। দিনটিতে নতুন করে করের আওতায় আসে ৭ হাজার মানুষ। আর রিটার্ন দেন প্রায় ৭০ হাজার করদাতা। সব মিলিয়ে সেবা নেন ২ লাখ ২৭ হাজার ব্যক্তি।

পঞ্চম দিনে কর আদায় হয় ২৯০ কোটি ৫২ লাখ ৯৩ হাজার ৭০৮ টাকা। রিটার্ন জমা দেন ৮১ হাজার ৫৯৯ জন। সেবা নেন ২ লাখ ৪৮ হাজার ৯১৭ জন। নতুন ইটিআইএন নেন ৫ হাজার ৪৮৮ জন। চতুর্থ দিনে কর আদায় হয় ২৫৩ কোটি ১৫ লাখ ৮১ হাজার ৫৪০ টাকা।

মেলার তৃতীয় দিনে কর আদায় হয় ২৪৫ কোটি টাকা। রিটার্ন জমা দেন ৭৪ হাজার জন। দ্বিতীয় দিনে ৫৫১ কোটি ১৫ লাখ ২০ হাজার ৩৯৮ টাকার কর আদায় হয়। আর প্রথম দিনে সারা দেশে কর আদায় হয় ২১৮ কোটি ৪৩ লাখ টাকা।

২০১০ সাল থেকে শুরু হওয়া আয়কর মেলার পরিধি এবং মেলার মাধ্যমে আয়কর বিভাগের সেবার পরিসর উত্তরোত্তর বাড়ছে। কর আহরণের পাশাপাশি সামাজিক ন্যায় বিচার ও সমতা নিশ্চত করতে ‘উন্নয়ন ও উত্তরণ, আয়করের অর্জন’ স্লোগানকে সামনে রেখে এ বছর আয়কর মেলার প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়। আয়কর মেলায় নতুন কর সনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) নেয়াসহ কর সংক্রান্ত সব ধরনের সেবা দেয়া হয়। মুক্তিযোদ্ধা, প্রবীণ ও নারীদের জন্য আলাদা বুথসহ বাড়তি সুবিধা হিসেবে যাতায়াতের জন্য ছিলো শাটল বাস।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ