Skip to main content

জুড়ীতে ধর্ষণের পর হত্যা মামলার প্রধান আসামী আটক

সোহেল রানা, মৌলভীবাজার : মৌলভীবাজারের জুড়ীতে ফারজানা জান্নাত রিমা (১৫) নামে এক কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা মামলার প্রধান আসামী দেলোয়ার হোসেনকে (৪০) আটক করেছে পুলিশ। সে উপজেলার পূর্ববাছিরপুর গ্রামের মৃত নশু মিয়ার পুত্র। রবিবার রাত ১২টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করে সোমবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করে জুড়ী পুলিশ। জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রিমাদের ভাড়া বাসার কেয়ারটেকার দেলোয়ার স্বীকার করে যে, সে ও তার সহযোগী বড়লেখা উপজেলার সফরপুর গ্রামের মৃত সমছ উদ্দিনের পুত্র ছাবের আহমদ বাবলু (৩০) পূর্ব পরিকল্পনা মতে গত ২৫ অক্টোবর রাতে উপজেলার দক্ষিণ জাঙ্গিরাই গ্রামে রিমাদের বাড়িতে গিয়ে কৌশলে রিমা, তার মা ও পরিবারের সদস্যদের ঘুমের ওষুধ খাওয়ায়। পরে দেলোয়ার ও বাবলু পালাক্রমে রিমাকে ধর্ষন করে। এক পর্যায়ে রিমার ঘুম ভেঙ্গে গেলে দু’জন মিলে মুখ ও গলা চেপে ধরে রিমাকে হত্যা করে পালিয়ে যায়। তিনি জানান, দেলোয়ার তার সহযোগী বাবলুর উপর দোষ চাপাচ্ছে। বাবলু পলাতক। সে ধরা পড়লে ঘটনার সঠিক তথ্য বেরিয়ে আসবে। উল্লেখ্য, উক্ত ঘটনায় রিমার মা ফাহিমা আক্তার (৩৫) বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন, আইন ২০০০ (সংশোধনী-০৩) এর ৯(২)/৩০ ধারায় জুড়ী থানায় মামলা (নং- ০৭, তারিখঃ ২৫.১০.১৮) করেন।

অন্যান্য সংবাদ