Skip to main content

সরকারি চাল আত্মসাতকারী কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের নির্দেশ

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল : সরকারি দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কাবিখার চাল আত্মসাতের ঘটনা প্রমানিত হওয়ায় বিভাগীয় মামলা দায়েরের জন্য খাদ্য মহাপরিচালকের কার্যালয় থেকে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।খাদ্য অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মামুন আল মোর্শেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, জেলার গৌরনদী উপজেলার সাবেক খাদ্য কর্মকর্তা বর্তমানে পটুয়াখালী সদরে কর্মরত বিএম শফিকুল ইসলাম ও সাবেক ওসিএলএসডি আব্দুস সালামের যোগসাজসে আট মেট্রিক টন খাদ্যশষ্য আত্মসাত করা হয়। চিঠিতে অভিযুক্ত দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার খসড়া তদন্ত ও মামলা শাখা, প্রশাসন বিভাগে প্রেরণের জন্য অনুরোধ করা হয়। সোমবার সকালে অধিদপ্তরের চিঠি পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জেলা ভারপ্রাপ্ত খাদ্য কর্মকর্তা অবনী মোহন দাস জানান, অভিযুক্ত কর্মকর্তাদ্বয়ের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সূত্রমতে, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে গৌরনদী উপজেলার পূর্ব বেজহার কালী মন্দির থেকে মামুন মোল্লার বাড়ি পর্যন্ত কাবিখা (বিশেষ) বরাদ্দের আওতায় আট মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়। অভিযুক্ত কর্মকর্তা তৎকালীন উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা বিএম শফিকুল ইসলাম ও ওসিএলএসডি আব্দুস সালাম প্রকল্পের সভাপতি মামুন মোল্লার স্বাক্ষর জাল করে আট মেট্রিক টন চাল আত্মসাত করে। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মামুন মোল্লা। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে বিষয়টি তদন্তের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে নির্দেশ দেয়া হয়। তিন সদস্যর কমিটির অধিকতর তদন্তের ওই দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে চাল আত্মসাতের সত্যতা মেলে।