প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘শুধু ভারতকেই দোষ দেওয়া কেনো?’

স্পোর্টস ডেস্ক: চলতি বছরে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট সিরিজ হারের জন্য কম কথা শুনতে হয়নি ভারত ক্রিকেট দলকে। এরই মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ খেলতে ভারতীয় দল পৌঁছে গেছে সেখানে। আর এই সিরিজকে সামনে রেখে আবারও প্রশ্ন উঠেছে, বিদেশের মাটিতে কেনো অচেনা হয়ে ওঠে ভারত? আর এবার দলের হয়ে উত্তরটা দিলেন প্রধান কোচ রবী শাস্ত্রী।

কিছুটা ক্ষোভ নিয়ে উল্টো প্রশ্ন করে বসেন, শুধু ভারতের দিকেই কেনো প্রশ্ন আসে? ২১ নভেম্বর থেকে ব্রিজবেনে শুরু হতে যাওয়া অস্ট্রেলিয়া-ভারত সিরিজের আগে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এমন প্রশ্ন করে বসেন শাস্ত্রী। তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি, তিন ম্যাচ ওয়ানডে ও চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে দল দুটি।

ব্রিসবেনে সিরিজ পূর্ববরতী সংবাদ সম্মেলনে নানান প্রশ্নের ফাঁকে শাস্ত্রী বলেন, ‘ভুল থেকে শিক্ষা নিতে হবে। আশপাশের দলগুলো দেখুন, খুব বেশি দল কিন্তু নেই যারা প্রতিপক্ষের মাঠে ভালো করতে পারে।’

অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার উদাহরণ টেনে তিনি আরও বলেন, ‘নব্বই দশকে ও এই শতাব্দীর শুরুতে অস্ট্রেলিয়া প্রতিপক্ষের মাঠে ভালো করেছে। দক্ষিণ আফ্রিকাও ভালো করেছে। এ দুটি দল ছাড়া গত পাঁচ-ছয় বছরে কোনো দলই সেভাবে ভালো করতে পারেনি। তাহলে শুধু ভারতকেই দোষ দেওয়া কেনো?’

তবে নিজের দলের দুর্বলতা নিয়েও কোনো রাখঢাক করেননি শাস্ত্রী। বলেন, ‘আগের দুই সফরে টেস্ট সিরিজের ফলাফল কিন্তু আসল ছবিটা তুলে ধরতে পারেনি। টেস্টে রীতিমতো লড়াই হয়েছিল। আমরা আসলে কয়েকটা জায়গায় একটু খারাপ খেলেছিলাম। যার ফলেই সিরিজে হারতে হয়েছিল। দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডে আমরা চার দিনে হয়তো একদিন একটা সেশনে ঘণ্টাখানেকের জন্য জঘন্য খেলেছি। ব্যাটিংয়ে বা বোলিংয়ে ব্যর্থ হয়েছি। আর তারই ফল ভুগতে হয়েছে।’

যদিও কেপটাউন টেস্টে বল বিকৃতি–কা-ের শাস্তি হিসেবে দলে নেই অস্ট্রেলিয়া দলের প্রধান দুই শক্তি স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। কিন্তু তবু কিছুতেই স্বাগতিকদের সহজভাবে নেওয়ার কথা ভাবছেন না শাস্ত্রী।
বলেন, ‘খেলাধুলার সংস্কৃতিটা একবার ঢুকে পড়লে থেকেই যায়। সব সময় বিশ্বাস করেছি, ঘরের মাঠে কোনো দলই দুর্বল নয়। কেউ যদি বলে এই দলটা দুর্বল, সেটি রীতিমতো বিস্ময়কর।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ