প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মেডিক্যাল বোর্ডের পরামর্শে খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা দেওয়ার নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক : মেডিক্যাল বোর্ডের পরামর্শ মতো বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।  সোমবার ১৯ নভেম্বর বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসা শেষ না করে কারাগারে পাঠানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ ও হাসপাতালে চিকিৎসা অব্যাহত রাখার আর্জি জানিয়ে দায়ের করা রিট করা হয়।

জানা গেছে, আদালত দুপুরের দিকে আদেশ দেবেন। এদিকে, গতকাল আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে আবেদনের শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এ জে মোহাম্মদ আলী। তাকে সহায়তা করেন, ব্যারিস্টার নওশাদ জমির ও ব্যারিস্টার কায়সার কামাল। আদালতে খালেদা জিয়ার আইনজীবী হিসেবে ছিলেন- সুপ্রিম কোর্ট বারের সভাপতি জয়নুল আবেদীন, সম্পাদক মাহবুবউদ্দিন খোকন, আইয়ুব আলী আশ্রফী, আনিছুর রহমান খান প্রমুখ।রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটনি জেনারেল মুরাদ রেজা।

এর আগে গত ১১ নভেম্বর বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে কারাগারে পাঠানোর বৈধতা নিয়ে রিট আবেদন করা হয়। রিট আবেদনে খালেদা জিয়াকে বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা অব্যাহত রাখার কথা বলা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রসচিব, কারা কর্তৃপক্ষ, বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষসহ নয়জনকে বিবাদী করা হয়েছে রিটে। এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, আমরা আদালতে বলেছি খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শেষ না করে মামলার কথা বলে কারাগারে নেয়া হয়েছে। আমরা আবেদনের বিষয়ে কিছু নথি জমা দিয়েছি।আদালত সোববার আদেশ দেবেন।

বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দিতে নির্দেশনা চেয়ে এর আগে খালেদা জিয়ার করা রিট আবেদনটি গত ৪ অক্টোবর নিষ্পত্তি করে কিছু নির্দেশনা ও পর্যবেক্ষণসহ আদেশ দেন হাইকোর্ট। হাইকোর্টের আদেশের পর চিকিৎসার জন্য ৬ অক্টোবর তাকে বিএসএমএমইউতে নেয়া হয়। এরপর থেকে তিনি ওখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। প্রায় এক মাস চিকিৎসার পর ৮ নভেম্বর বিএসএমএমইউ থেকে তাকে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে ফিরিয়ে নেয়া হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ