প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এই মেমের ছবিটি কার জানেন তো?

বাংলাদেশ প্রতিদিন : ফেসবুকসহ প্রায় সকল সোশ্যাল মিডিয়ার মেমে, উপরের ছবিটি। বিভিন্নভাবে ছবিটি ব্যবহৃত হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। ট্রল, অনুভুতিমূলক কমেন্ট কী নেই যেখানে ব্যবহৃত হয় না ছবিটি। কিন্তু কজন জানেন আসল ছবিটি কার।

এই ছবিটির ভেতর লুকিয়ে আছেন খুবই পরিচিত একজন। তবুও যাকে চেনেন না অনেকেই। ছবিটি আসলে প্রাক্তন বাস্কেটবল খেলোয়াড় ইয়াও মিংয়ের। সাড়ে ৭ ফুট উচ্চতার মিংয়ের জন্ম চীনের সাংহাই প্রদেশে। বয়স ৩৮ বছর। সাংহাই শার্কস ও আমেরিকায় এনবিএ (NBA)-র হিউস্টন রকেটস দলে খেলেছেন বছরের পর বছর। খেলা থেকে এখন অবসরে আছেন। তবে চীনা বাস্কেটবল অ্যাসোসিয়েশনে সভাপতি হিসেবে নিযুক্ত আছেন মিং।

তাহলে কীভাবে ভাইরাল হলো ছোটবেলায় এক কানে শ্রবনশক্তি হারানো মিংয়ের মেমে? ২০০৯ সালে একটা বাস্কেটবল ম্যাচের পরে সাংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন মিং। ওই সময় এই মজার অভিব্যক্তিটি মিং-এর মুখে ফুটে ওঠে। এর পরের বছর অর্থাৎ, ২০১০ সালে ‘রেজ কমিক্স’ ক্যাম্পেনের মাধ্যমে ‘ডাম্ব বিচ’ নামে ইয়াও মিং-এর এই অভিব্যক্তির ছবি দিয়ে তৈরি মেমেটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। তার পর থেকেই হাস্যকর ‘সোশ্যাল পোস্ট’-এর প্রতীক হয়ে উঠেছে ইয়াও মিং-এর ছবিটি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ