প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রধানমন্ত্রী কথা রাখেনি ইসিতে মামলার তালিকা দিল বিএনপি

সাইদ রিপন: গ্রেফতার হওয়া নেতাকর্মীদের তালিকা প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে দেয়ার পরও কোন পদক্ষেপ না নেয়ায় এবার সেই তালিকা নির্বাচন কমিশনে (ইসি) জমা দিয়েছে বিএনপি। ইসির কাছে অভিযোগ করে বিএনপি বলেছে, প্রধানমন্ত্রী তার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেননি। তফসিল ঘোষণার পর থেকে এখন পর্যন্ত তাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার, মামলা ও হয়রানি অব্যাহত আছে। তাছাড়া নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ উপেক্ষা করে বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতার অব্যাহত রেখেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনী।

রোববার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে এই তালিকা জমা দেয় বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মামলা ও তথ্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা মো. সালাহ উদ্দিন খানের নেতৃত্বে দুই সদস্যের এক প্রতিনিধি দল।

তালিকা অনুযায়ী, তফসিল ঘোষণার পর থেকে এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করা হয়েছে ৭৭৩ জন বিএনপির নেতাকর্মী। চিঠিতে বলা হয়, পহেলা নভেম্বর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সংলাপে মিথ্যা ও গায়েবি মামলা এবং গ্রেফতারের তালিকা দেয়ার জন্য জানান সরকার প্রধান। সেই আলোকে বিএনপির পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বরাবর ৭ নভেম্বর প্রথম দফায় ১ হাজার ৪৬টি মামলার তালিকা দেয় বিএনপি। দলটি পরবর্তীতে দ্বিতীয় দফায় ১ হাজার ২টি মামলার নম্বর, ধারাসহ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে জমা দেয় ১৩ নভেম্বর।

চিঠিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রীর দেয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী মামলাগুলো প্রত্যাহার এবং গ্রেফতার হওয়া নেতাকর্মীদেরকে অব্যাহতি না দেওয়া নিঃসন্দেহে উদ্বেগজনক।

গত ৮ নভেম্বর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে আজ পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী ৭৭৩ জন বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর তালিকা গত ১৫ নভেম্বর নির্বাচন কমিশন বরাবর দেওয়া হয়েছে। তফসিল ঘোষণার পর আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী নির্বাচন কমিশনের অধীনে হলেও কমিশনের নির্দেশ উপেক্ষা করে ধারাবাহিকভাবে বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও বাড়িতে পুলিশি তল্লাশি অব্যাহত রয়েছে। এ কারণে প্রধানমন্ত্রীর দফতারে দেয়া তালিকা আপনার (প্রধান নির্বাচন কমিশনার) বরাবর দেয়া হলো। তফসিল ঘোষণার পরও নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ উপেক্ষা করে উল্লিখিত গায়েবি মামলার আসামিদের বাড়িতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হুমকি ও গ্রেফতার অব্যাহত আছে। অবিলম্বে নেতাকর্মীদেরকে মামলা থেকে অব্যাহতিসহ গ্রেফতার বন্ধের জন্য আপনার (সিইসি) কাছে আবারও অনুরোধ করা হলো। সম্পাদনা: হুমায়ুন কবির খোকন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ