Skip to main content

কুয়াকাটা সৈকতে রাসমেলায় পজিশন দখল নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা

উত্তম কুমার, কলাপাড়া(পটুয়াখালী) : পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার সৈকতে রাসমেলার পজেশন ভাড়া ও দখল নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। রবিবার সকালে এ ঘটনায় কুয়াকাটা মহাসড়কে বিক্ষোভ মিছিল করেছে স্থানীয় ব্যবসায়িরা। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ সানরাইজ হোটেলের মালিক শাহজালাল মিয়া নিজেদের জমি দাবী করে সৈকতে থাকা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অবৈধভাবে প্রায় ৩ বছর যাবত ভাড়া আদায় করে আসছে। উত্তেজনা ও বিক্ষোভ মিছিলের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সানরাইজ হোটেলের মালিক শাহজালাল মিয়া সৈকতের পশ্চিম পাশে সাদাবালিতে রাসমেলায় আগত ভাসমান ব্যবসায়িদের কাছে ভাড়ার উদ্যেশে পজেশন দখল এবং ঘর নির্মাণ করতে গেলে কাউন্সিলর মো.শাহ আলম ও কুয়াকাটা পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি আব্বাস কাজী বাঁধা দেয়। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হয়। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ইসমাইল জানান, সৈকতের সাদাবালিতে বাঁশের বেড়া দিয়ে পজেশণ দখল করে রাস পুর্ণিমার মেলায় আগত ভাসমান ব্যবসায়ীদের কাছে হাত মেপে ভাড়ার জন্য ভাসমান ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ৫ শত থেকে ১ হাজার টাকা করে হাতিয়ে নিচ্ছে। এ কারনে স্থাণীয় ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা এর প্রতিবাদ জানিয়ে কাউন্সিলরের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। সৈকতের জমির মালিকানা দাবীদার শাহ জালাল মিয়া বলেন, তার জমিতে তিনি ঘর তুলতে গেলে কাউন্সিলর বাঁধা দেয়। এ বিষয়ে তিনি মহিপুর থানায় মৌখিক ভাবে অভিযোগ করেছেন বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান। মহিপুর থানার ওসি মো. সাইদুল ইসলাম জানান, সৈকতে পজেশণ দখল নিয়ে উত্তেজনা ও বিক্ষোভ মিছিলের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই পক্ষকে আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখতে শান্ত থাকার জন্য বলা হয়ে। এ নিয়ে যাতে আর কোন ঝামেলা না হয় এজন্য তিনি দুই গ্রুপকে সতর্ক করে দিয়েছেন।

অন্যান্য সংবাদ