প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সহজে তৈরি করুন মুখোরোচক ৩ পদের মিষ্টি খাবার

কান্তা আইচ রায় : আমরা সবাই কমবেশি মিষ্টিজাতীয় খাবার পছন্দ করি। আর তা যদি হয় কোন অনুষ্ঠানে তাহলে তো কথাই নেই। কিছু মিষ্টি জাতীয় খাবার আছে যা আমরা অনুষ্ঠান ছাড়াও তৈরি করতে পারি।

১. ছানার সন্দেশ : যারা মিষ্টিপ্রেমী তাদের কাছে পছন্দের একটি নাম ছানার সন্দেশ। এটি তৈরি করা খুব সহজ এবং খেতেও দারুণ সুস্বাদু তাই অনেকেই বাড়িতে তৈরি করতে পারে। রেসিপি জানা থাকলে আপনিও তৈরি করতে পারবেন এই মজাদার খাবারটি।

উপকরণ :
ছানা (পানি ঝরানো) : ২৫০ গ্রাম
চিনি : ১০০ গ্রাম
পেস্তা (কুচি) : ৫/৬ টি
কিসমিস : সাজানোর জন্য
এলাচ (গুড়া) : এক চিমটি

প্রস্তুত প্রণালী : একটি পাত্রে ছানা, চিনি ও এলাচগুঁড়া দিয়ে একসাথে খুব ভাল করে মেখে নিন। এবার অন্য একটি পাত্রে ছানার মিশ্রণটি ঢেলে দিয়ে কম আঁচে নাড়তে হবে। ছানা শুকনো হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। একটি পাত্রে সামান্য ঘি মেখে সন্দেশের মিশ্রণ ঢেলে বসিয়ে নিতে হবে। ঠান্ডা হলে ছোট ছোট টুকরো করে কাটুন। এরপর উপরে পেস্তাকুচি ও কিসমিস দিয়ে সাজিয়ে নিয়ে পরিবেশন করুন।

২. কমলার হালুয়া : সুস্বাদু কমলার হালুয়া ঝটপট তৈরি করা যায়। এই হালুয়া পরিবেশন করা যায় অতিথি আপ্যায়নে।

উপকরণ :
কমলার রস : দেড় কাপ
চিনি : ১ কাপ অথবা স্বাদ মতো
কর্ণ ফ্লাওয়ার : আধা কাপ
লেবুর রস : ২ চা চামচ
কমলা ফুড কালার : ১ চিমটি
ঘি : ৪ টেবিল চামচ
এলাচের গুঁড়া : ১/৪ চা চামচ
কাঠবাদাম কুচি : সাজানোর জন্য

প্রস্তুত প্রণালী : কমলার রস ছেঁকে নিয়ে তার সাথে কর্ণ ফ্লাওয়ারের মিশিয়ে নিন। মৃদু আঁচে হাঁড়ি বসিয়ে চিনি ও আধা কাপ পানি ঢেলে দিতে হবে। চিনি গলে গেলে লেবুর রস দিতে হবে। এবার কমলার রস ও কর্ণ ফ্লাওয়ারের মিশ্রণ ঢেলে দিতে হবে। চুলার আঁচ কমিয়ে অনবরত নাড়তে হবে। কয়েক মিনিট পর ফুড কালার দিয়ে দিতে হবে। মিশ্রণটি ঘন হয়ে গেলে ১ টেবিল চামচ ঘি দিয়ে নাড়তে থাকুন। ভালো মতো মিশে গেলে আরও ১ টেবিল চামচ ঘি দিন। এভাবে ৪ টেবিল চামচ ঘি মিশিয়ে নিন হালুয়ায়। হালুয়ার রঙ স্বচ্ছ হয়ে গেলে এলাচের গুঁড়া দিয়ে নাড়ুন। যে বাটিতে রাখা হবে সেখানে অল্প ঘি মিশিয়ে
হালুয়া রেখে চেপে চেপে সমান করে নিতে হবে উপরের অংশ। কাঠবাদাম কুচি ছিটিয়ে এক ঘণ্টা রুম টেম্পারেচারে রেখে দিতে হবে। হালুয়া জমে গেলে ট্রেতে উঠিয়ে পছন্দ মতো আকৃতিতে কেটে পরিবেশন করুন।

৩. ক্ষীর পাটিসাপটা : পিঠার মৌসুম আবার চলে এলো। বাতাসে শীতের আমেজ। শীতকাল মানেই পিঠা খাওয়ার ধুম। নতুন নতুন স্বাদের পিঠা খাওয়ার এখনই সময়। তা যদি হয় ক্ষীরের পাটিসাপটা তাহলে তো জীভে পানি আসবেই।

ক্ষীরসা তৈরির উপকরণ:
তরল দুধ : ১লিটার
চালের গুঁড়া : ১টে চামচ
এলাচ গুঁড়া : ১/২চা চামচ
কনডেন্সড মিল্ক : ১কাপ
বাদাম কুচি : ২টেবিল চামচ

প্রস্তুত প্রণালি: একটি পাত্রে দুধ ও এলাচ দিয়ে ঘন করুন। এখন কনডেন্সড মিল্ক ও চালের গুঁড়া মিশিয়ে দুধ অনবরত নাড়–ন। ঘন হয়ে গেলে ১ টেবিল চামচ ঘি ও বাদাম কুচি দিয়ে নামিয়ে নিন।

পাটিসাপটা তৈরির উপকরণ:
হালকা গরম পানি বা দুধ : ৪ কাপ
চালের গুঁড়া : ২ কাপ
সুজি : ১/২ কাপ
ময়দা : ১ কাপ
চিনি :১/২ কাপ বা পরিমাণমতো ঘি : ১ টেবিলচামচ।

প্রস্তুত প্রণালী : একটি পাত্রে দুধ, গরম পানি, সুজি, চালের গুড়ো, ময়দা, ঘি ও দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। কোনো দানা যেন না থাকে। মিশ্রণটি কিছুটা পাতলা হবে। ৩০ মিনিট এভাবে রেখে দিন। ফ্রাইপ্যানে ১/২ চা চামচ তেল ব্রাশ করে মাঝারি আচে ১/৪ কাপ ব্যাটার দিয়ে চারিদিকে গোল করে ছড়িয়ে দিন। প্যানকেক হয়ে এলে এর একপাশে লম্বা করে ক্ষীরসা দিয়ে রোল করে নিন। হয়ে গেল মজাদার ক্ষীর পাটিসাপটা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ