Skip to main content

ভারতের এডিটর্স গিল্ডের নতুন সদস্যতালিকায়ও আছেন এমজে আকবর, তরুণ তেজপাল

ইমরুল শাহেদ : ভারতের এডিটর্স গিল্ড শুক্রবার তাদের তালিকা হাল নাগাদ করেছে। তাতে সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এমজে আকবর এবং তেহেলকার এডিটর-ইন-চার্জ তরুণ তেলপালের নাম রাখা হয়েছে। অথচ তাদের দু’জনের বিরুদ্ধেই রয়েছে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ। গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব হিসেবে তাদের নাম বাদ দেওয়ার জন্য চাপ থাকা সত্ত্বেও গিল্ড সদস্য হিসেবে তাদের নাম বাদ দেওয়া হয়নি।#মি টু আন্দোলনের সময় এমজে আকবরের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকজন নারী যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এনেছেন। অপর ব্যক্তিত্ব তরুণ তেজপাল বর্তমানে জামিনে আছেন ধর্ষণ মামলায়। গিল্ডের হাল নাগাদ করা তালিকায় সিনিয়র সাংবাদিক গৌতম অধিকারীর নামও আছে। তিনিও যৌন নির্যাতনের অপরাধে অভিযুক্ত। গত মাসে এমজে আকবরের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠার পর তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী থেকে পদত্যাগ করেন। তবে এডিটর্স গিল্ড থেকে গত মাসে বলা হয়েছিল, তিনি প্রিয়া রামানির বিরুদ্ধে যে মামলা করেছেন, তা যেন প্রত্যাহার করে নেন। এমন কথাও বলা হয়েছে, যদি আকবর তার মামলা প্রত্যাহার না করেন তাহলে সবাই মিলে নারী সাংবাদিকদের সার্বিক সহায়তা প্রদান করবেন। এ মাসের শুরুর দিকে এডিটর্স গিল্ড থেকে বলা হয়েছে, গিল্ড আকবরের ঘটনাবলি পর্যবেক্ষণে রেখেছে। তার সদস্যপদ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর। গিল্ডের এই বিবৃতিটি তখনই দেওয়া হলো, যখন যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক একজন সম্পাদক ২৩ বছর আগে ভারতে তাকে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন এমজে আকবরের বিরুদ্ধে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গিল্ডের সাধারণ সভায় বলা হয়েছে, যারা পেশার রুপান্তর ঘটিয়েছেন তাদের নাম গিল্ডে থাকবে না। এমজে আকবরের ক্ষেত্রেও একই কথা। ইয়ন