প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০১৯ সাল নাগাদ আবাসন খাতে ২ শতাংশ মূল্যস্ফীতি হবে ভারতের

নূর মাজিদ : ২০১৯ সালে মূলধন সংকটের কারণে ভারতের আবাসন খাতে ২ শতাংশ মুল্যস্ফিতি হতে পারে। গত শুক্রবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক আবাসন খাত সংক্রান্ত জরিপের ফলাফলে এই পূর্বাভাষ দেয়া হয়। রয়টার্স দেশটির শীর্ষ আবাসনখাত বিশেষজ্ঞদের মাঝে এই জরিপ পরিচালনা করে। সেখানে অংশগ্রহণকারী অধিকাংশ বিশেষজ্ঞ এমন অভিমত প্রকাশ করেছেন। বর্তমানে প্রায় ১৩০ কোটি জনসংখ্যার দেশ ভারতে দুই ডিজিটে ফ্ল্যাট বিক্রি করা হচ্ছে। সেখানে একটি নিজস্ব বাড়ির মালিকানা অনেক নাগরিকের কাছেই একটি অধরা স্বপ্নের মতো। অন্যদিকে একই সময় ভারতের বৃহৎ নগরীগুলোতে জনসংখ্যার চাপ বাড়ছে বলেই জানায় রয়টার্স।

তবে এশিয়ার তৃতীয় বৃহৎ অর্থনীতির দেশটিতে আবাসন ঋণ এবং অর্থায়নে ব্যাপক তারল্য সংকট রয়েছে। বর্তমানে দেশটির এইখাতের বিনিয়োগকারী আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যাপক দেনার দায় তৈরি হয়েছে। বর্তমানে দেশটির বৃহত্তম আবাসন ঋণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস জুন মাস নাগাদ তাদের স্বল্প-মেয়াদি দেনা পরিশোধেও ব্যর্থ হয়েছে। এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দেশটির সরকার এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রণীত নীতিও হিমশিম খাচ্ছে এবং তারা উভয়েই একে অপরকে দোষারোপ করছে। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার ইতোমধ্যেই রিজার্ভ ব্যাংক ও ইন্ডিয়ার নীতির সমালোচনা করে আবাসন খাতে ঋণ প্রদানকারী ব্যাংক ও ফাইন্যান্স কো¤পানিগুলোর জন্য নীতিমালা শিথিল করার আহ্বান জানিয়েছে। গতবছর দেশটির আবাসন খাতে বার্ষিক মূল্যস্ফীতির পরিমাণ ছিলো ৮ দশমিক ৫ শতাংশ। ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ