Skip to main content

১৪ দলের সঙ্গে ঐক্য নিয়ে লুকোচুরি নেই : বি চৌধুরী

মো. ইউসুফ আলী বাচ্চু: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের সঙ্গে নির্বাচনী ঐক্যে যাওয়া নিয়ে যুক্তফ্রন্টের অবস্থান আরো স্পষ্ট করেছেন জোটের প্রেসিডেন্ট এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। শনিবার বিকালে রাজধানীর মধ্য বাড্ডায় ট্রপিক্যাল মোল্লা টাওয়ারে বিকল্পধারা ও যুক্তফ্রন্টের অস্থায়ী নির্বাচনী কার্যালয়ে জোটের এক বৈঠকে এসে তিনি বলেন, “১৪ দলের সঙ্গে ঐক্য নিয়ে চেষ্টা চলছে । এ নিয়ে কোনো লুকোচুরি নেই। খোলাখুলিভাবেই বলছি আজ।” কদিন আগে বি চৌধুরীর বাসভবনে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্যদের এক বৈঠক শেষে যুক্তফ্রন্টের সমন্বয়ক ও বিকল্পধারার সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য গোলাম সারোয়ার মিলন জানিয়েছিলেন, যুক্তফ্রন্ট মহাজোটে যাচ্ছে। তবে দল বা জোটের পক্ষ থেকে আসছিল না আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচালে কোনো ব্যক্তি বা দল ষড়যন্ত্র করলে দেশ তাদের কখনো ‘ক্ষমা করবে না’ বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি। নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “নির্বাচন হতেই হবে। নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড দিতে হবে। যদি তা না দেওয়া হয়, তবে নির্বাচন কমিশন এজন্য দায়ী থাকবে।নির্বাচন কমিশন এখন রাষ্ট্রপতির কাছে দায়বদ্ধ। তাই রাষ্ট্রপতি ও নির্বাচন কমিশন ইতিহাসের কাছে দায়বদ্ধ থাকবে।” একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত জামায়াত ইসলামীকে ছেড়ে না আসায় কামাল হোসেনের ঐক্যফ্রন্ট থেকে বেরিয়ে আসে বি চৌধুরীর বিকল্পধারা। যুক্তফ্রন্ট কখনো স্বাধীনতাবিরোধীদের সঙ্গে জোট করবে না- এমন প্রতিজ্ঞা উচ্চারণ করেন বি চৌধুরী। “যারা স্বাধীনতা বিরোধী, যারা মানচিত্রকে অস্বীকার করে আমরা তাদের সাথে কোনো জোট করব না।আমরা অবশ্যই মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের দল।” পরে ঐক্যফ্রন্টকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “আজকে স্বাধীনতা বিরোধীদের সঙ্গে যে ঐক্য হয়েছে, তারাও পরোক্ষভাবে মানচিত্রকে অস্বীকার করে।” যুক্তফ্রন্ট সন্ত্রাস ও দুর্নীতিকে কখনো ‘প্রশ্রয় দেবে না’ বলেও এই সভায় প্রতিশ্রুতি দেন বি চৌধুরী। বি চৌধুরী বলেন, “আজকে দুর্নীতি যদি কমানো যেত, তবে দেশের উন্নয়নের গতি আরো বেড়ে যেত।” সভায় আলোচনায় যোগ দেন বিকল্পধারার মহাসচিব আবদুল মান্নান, যুক্তফ্রন্টের সমন্বয়ক ও বিকল্পধারার সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য গোলাম সারোয়ার মিলন, শরিক দল বাংলাদেশ গণসংস্কৃতি দলের সভাপতি সরদার শামস আল মামুন। যুক্তফ্রন্টে শরিক দলের সংখ্যা ১৪টি, দুটি জোট পরে সংহতি জানায়।

অন্যান্য সংবাদ