প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পরিছন্ন অভিযানে ঝাড়ু হাতে কক্সবাজার পৌরমেয়র

এম. আমান উল্লাহ, কক্সবাজার: সকাল শুরুতেই ঝাড়ু হাতে নিয়ে কক্সবাজার শহরে ময়লা পরিস্কারে নেমেছেন মেয়র মুজিবুর রহমান। ১৭ নভেম্বর (শনিবার) সকাল আটটা থেকে পৌর ভবন হয়ে বার্মিজ মার্কেট পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার কাজ চলে। এছাড়া পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডে সংশ্লিষ্ট কাউন্সিলরের নেতৃত্বেও পরিচ্ছন্ন করা হয় এলাকাগুলো। এতে প্রায় সাড়ে ৩০০ জন পরিচ্ছন্ন কর্মী অংশ নেন। এবারে প্রথমবারের মতো এসব পরিচ্ছন্ন কর্মীদের পোশাকও দেওয়া হয়েছে পৌরসভার পক্ষ থেকে।

“পরিচ্ছন্ন কক্সবাজার, আমাদের অঙ্গীকার” শ্লোগানে শনিবার সকাল ৮টায় পৌর ভবন চত্বর থেকে শুরু হয় “পরিচ্ছন্নতা অভিযান-২০১৮।” শনিবার থেকে পৌর শহরে টানা চলবে পরিচ্ছন্নতা অভিযান। সকাল ৮ টা থেকে লালদিঘীর পাড়, পানবাজার সড়ক, ভোলা বাবুর পেট্টোল পাম্প, আইবিপি মাঠ, বাজারঘাটা ও বার্মিজ মার্কেট সড়কের দু’পাশে পরিচ্ছন্নতার কাজ চলে।

কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, মনে রাখবেন-এই শহর আপনার আমার সকলের। পাশাপাশি বাংলাদেশেরও অমূল্য সম্পদ। এখানে প্রতিনিয়ত দেশী-বিদেশী পর্যটকরা ভ্রমণে আসেন। তাই ভিনদেশী অতিথিদের কাছে আমাদের কক্সবাজার কোনভাবেই যেন অসম্মানিত না হয় সেদিকে সব শ্রেণি পেশার মানুষকে লক্ষ্য রাখতে হবে। বিশেষ করে শহরকে সাজাতে হবে। পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। শহরের কোথাও যাতে ময়লা আবর্জনা না থাকে সেই লক্ষ্যে কাজ করছি আমরা। এই অভিযান থেকে আশা করি সুন্দর শহরে পরিণত হবে কক্সবাজার।

তিনি আরও বলেন, শুধু নাগরিক দায়িত্ব নয়, দেশপ্রেম নিয়ে যে যার পেশাগত অবস্থান থেকে সকলেই আন্তরিক হলে দ্রুত সময়ের মধ্যে কক্সবাজার হয়ে উঠবে বিশ্বমানের আধুনিক পর্যটন নগরী। সে ক্ষেত্রে প্রথম কাজ হলো-সৌন্দর্যের এই রাজধানীকে সবসময় নিজ নিজ দায়িত্ব থেকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা। পাশাপাশি ময়লা-আবর্জনা মুক্ত পরিচ্ছন্ন কক্সবাজারে রূপ দেয়ার আনুষ্ঠানিক উদ্যোগটির গুরুত্বপূর্ণ এই সংবাদ সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া। পরিচ্ছন্নতা অভিযান সকল কাউন্সিলর, পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিভিন্ন সমাজসেবীরা অংশ নেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ