প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফেসবুকে বাড়ছে ভুয়া আইডি ব্যবহার, কমছে না হয়রানির অভিযোগ

হ্যাপি আক্তার : ফেসবুক জনপ্রিয় এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করছে সব বয়সের মানুষ। তবে ফেসবুকের ভুয়া আইডি ব্যবহার করে অনেকেই প্রতারণা ও হয়রানি করার জন্য। যার কারণে বাড়ছে হয়রানির অভিযোগ। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে গত তিন বছরে প্রায় ২ হাজার অভিযোগ জমা পড়েছে। নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ভুয়া আইডির মাধ্যমে হয়রানির সর্বোচ্চ শাস্তি ৭ বছরের কারাদণ্ড করা হলেও কমছে না অপরাধ। বন্ধু বাছাইয়ের ক্ষেত্রে সতর্ক হওয়ার তাগিদ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

গত বছরের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত দেশে ফেইসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল প্রায় ২ কোটি ৩৩ লাখ। জনপ্রিয় এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করছে সব বয়সের মানুষ। তবে ফেইসবুকে হয়রানির শিকারও হচ্ছেন অনেকে। ভুয়া আইডি ব্যবহার করে নানা ধরনের গুজব ছড়ানোর পাশাপাশি ব্যক্তিগত হয়রানির অভিযোগ ক্রমাগত বাড়ছ।

ভুয়া আইডির মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি হয়রানি করা হচ্ছে নারীদের। পাশাপাশি শত্রুতার জের ধরে ভাবমূর্তি নষ্টের জন্যও অপরাধীরা ব্যবহার করছে এ ধরনের আইডি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভুয়া আইডির বেশিরভাগ খোলা হয় প্রতারণা ও হয়রানি করার জন্য। এজন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বন্ধু বাছাইয়ের ক্ষেত্রে সতর্ক হওয়ার তাগিদ দিচ্ছেন তারা।

পুলিশ বলছে, ডিজিটাল অপরাধী শনাক্ত করে ব্যবস্থা নিচ্ছে সাইবার ক্রাইম ইউনিট। ভুয়া আইডির মাধ্যমে হয়রানির ঘটনা ঘটলে তাৎক্ষণিক পুলিশকে জানাতে বলেছেন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হিসেবে, ২০১৬ ও ১৭ সালে ভুয়া আইডি সংক্রান্ত ৫৭৪টি অভিযোগ পুলিশকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়। এ বছর এখন পর্যন্ত এই সংখ্যা একহাজার ৩৯৭। সূত্র : ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ