প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জেলে গেলেন ম্যানচেস্টার সিটির কোচ পেপ গার্দিওলা!

স্পোর্টস ডেস্ক : ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলে আন্তর্জাতিক বিরতি। খেলোয়াড়েরা নিজ জিন দেশের জাতীয় দলের হয়ে খেলায় ব্যস্ত। ক্লাব কোচরা পেয়ে গেছেন ছুটি। চাইলে এই ছুটিতে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে দূরে কোথাও বেড়াতে যেতে পারতেন। উল্টো পেপ গার্দিওলা গেলেন জেলখানায়! না, হঠাৎ কোনো অপরাধ করে আসামী হিসেবে জেলখানায় যাননি ম্যানচেস্টার সিটির স্প্যানিশ কোচ। গার্দিওলা জেলখানায় গিয়েছিলেন কাতালনের স্বাধীনতাকামী বন্দী নেতাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে।

৪৭ বছর বয়সী গার্দিওলা সরাসরি কাতালনের স্বাধীনতার পক্ষে। প্রকাশেই কাতালনের স্বাধীনতার জন্য বক্তব্য-বিবৃতি দেন। আসলে গার্দিওলাদের পুরো পরিবারই কাতালনের স্বাধীনতার পক্ষে। এর খেসারতও তাদের দিতে হচ্ছে অনেক। তাদের পুরো পরিবারই স্পেনের কেন্দ্রীয় সরকারের রোষানলের শিকার।

কিন্তু কেন্দ্রের সেই হুমকি-ধামকি, শাস্তি, হয়রানি- কোনো কিছুই স্বাধীনতার দাবি থেকে গার্দিওলাদের দমিয়ে রাখতে পারছে না। স্বাধীনতার পক্ষে লড়াই করেই চলেছেন তারা। জেলবন্দী নেতাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ সেই লড়াইয়ের অংশ। গার্দিওলার মতো একজন বিশ্বসেরা ফুটবল কোচ দেখা করতে জেলখানায় যাওয়ায় বন্দী নেতারা খুব খুশি।
সাবেক বার্সেলোনা কোচের সঙ্গে সাক্ষাতের পরপরই যেমন জেলখানায় বন্দী কাতালনের স্বাধীনতা আন্দোলনের প্রধান নেতা জর্ডি কুইজার্ট টুইট করেছেন। টুইটে তিনি গার্দিওলাকে ‘একজন সত্যিকারের নেতা’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে লিখেছেন।
গার্দিওলা একাই নন। তার সঙ্গে জেলখানায় গিয়েছিলেন কারাবন্দী নেতাদের আইনজীবীরাও। মানে আইনজীবীদের সঙ্গে কারবন্দী নেতাদের আইনী আলোচনা, পরামর্শেও অংশ নিয়েছেন গার্দিওলা। -ইয়াহু স্পোর্টস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ