প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচনের আগে চট্টগ্রামে অবৈধ অস্ত্র ব্যবহারের শঙ্কা

রওশন আরা তানিয়া: চট্টগ্রামে বেড়েছে অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার, যার বেশিরভাগই ক্ষুদ্রাস্ত্র। গেলো কয়েক বছরে অনেক ঘটনায় দেখা গেছে এসব অস্ত্রের ব্যবহার যার একটিও উদ্বার হয়নি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এসব অস্ত্রের ব্যবহার হতে পারে বলে শঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

গত ২৯ র্মাচ অনুষ্ঠিত হয় চট্টগ্রামের সিটি করপোরেশনের গোহাইলাঙ্গা ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচন। সে সময় অস্ত্র হাতে দেখা যায় দুই গ্রুপের অন্তত ৫ জনকে। ৮ মাসেও এসব অস্ত্র উদ্ধার ও চিহ্নিত করা যায়নি অস্ত্রধারী কাউকে।

যদি অস্ত্রগুলো উদ্ধার করা না যায়, তাহলে নির্বাচনের ক্ষেত্রে প্রধান সমস্যা হযে দাঁড়াবে বলে মনে করেন, চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আখতার কবির চৌধুরী।

২৭ এপ্রিল নগরীর চকবাজার এলাকায় প্রকাশ্যে অস্ত্র হাতে দেখা যায় এক যুবককে। পরর্বতীতে উদ্ধার হয়নি যুবকের হাতের অস্ত্রটি। চলমান অনেক ঘটনায় এসব অবৈধ অস্ত্রের
ব্যবহার। ব্যর্থতার কথা স্বীকার করলেও অস্ত্র উদ্ধারের তৎপর বলে জানিয়েছে, পুলিশ কমিশনার সিএমপি মাহবুবর রহমান।

কিছুদিন আগে চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ বাঁশখালি এবং কক্সবাজার এলাকায় অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে পুলিশ ও র‌্যাব। তাদের ধারণা সহজলভ্য হওয়ায় অস্ত্র দেখা যাচ্ছে সন্ত্রাসী এবং রাজনৈতিক কর্মীদের হাতে।

তবে ভোটের সময় অস্ত্র ব্যবহার সর্ম্পকে কঠোর ব্যবস্থার কথা জানান, চট্টগ্রাম রিটানিং নির্বাচন কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসেন। সূত্র: যমুনা টিভি

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ