প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘ফাঁক-ফোকর দিয়ে ওয়ান ইলেভেনের মতো ষড়যন্ত্রের সুযোগ তৈরি হয়ে যাবে’

হ্যাপি আক্তার : সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণেই ২৮ জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন করতে হবে। নতুবা দেশে সাংবিধানিক জটিলতার ফাঁকে ওয়ান ইলেভেনের মত নতুন ষড়যন্ত্রের সুযোগ সৃষ্টি হবে বলে মনে করেন সামাজিক উন্নয়ন ও গবেষণামূলক সংস্থা সুচিন্তার চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এ আরাফাত।

তিনি বলেন, নির্বাচন অনুষ্ঠানের সময় যদি কোনো কারণে অধিকাংশ আসনের নির্বাচন করা সম্ভব না হয় সেক্ষেত্রে নির্বাচন স্থগিত করাসহ পুনঃনির্বাচনের জন্য আবার নতুন তারিখ ঘোষণা করতে হবে নির্বাচন কমিশনকে। ফলে নির্বাচনের জন্য যৌক্তিক সময়টাকেই নির্ধারণ করেছে কমিশন। নির্বাচনের জন্য নতুন করে তারিখ ঘোষণার জন্য জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দাবির প্রেক্ষিতে যমুনা টেলিভিশনের ‘রাজনীতি’ টকশোতে এসব কথা বলেন তিনি।

আরাফাত বলেন, নির্বাচনের জন্য যে তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে, সেটা নিয়ে বির্তকের কিছু নেই। ইতোমধ্যেই তিনবার তারিখ পেছানো হয়েছে। আর নির্বাচনের তারিখ পুনরায় নির্ধারনের জন্য বিএনপির এই দাবির পেছনে সাংবিধানিক জটিলতার কূটকৌশল রয়েছে বলে মনে করছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

নয়াপল্টনে মনোনয়ন পত্র নেবার সময় বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সংঘর্ষ ও পুলিশের গাড়িতে আগুন দেওয়ার কথা উল্লেখ করে আরাফাত বলেন, বিএনপি এই ঘটনায় ছাত্রলীগকে দায়ী করতে চাইছে। কিন্তু তারা যে মিথ্যা বলছে তা কিন্তু বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে।

ডিজিটাল যুগে গুজব ছড়ানো সহজ নয় উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, এখন খুব তারাতারি সত্য উন্মোচিত হয়। বিএনপিকে সন্ত্রাসী দল আখ্যা দিয়ে সুচিন্তার চেয়ারম্যান বলেন, তারা যে একটি সন্ত্রাসী দল সেটা আমরা গত ১০ বছরে দেখেছি। দু’দফা তারা অগ্নি সংযোগ করেছে, জঙ্গি, রাজাকার ও সন্ত্রাসের সঙ্গে মিলেমিশে যেভাবে সাধারণ মানুষকে পুড়িয়ে মেরেছে সেই প্রমাণ কানাডার আদালতেও আছে।

বিএনপি শুধু দেশে নয় দেশের বাহিরেও তারা সন্ত্রাসী করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশে পুলিশ গ্রেফতার করলেই বিএনপি বলে তাদের সরকার দমন-পীড়ন করছে। কিন্তু লন্ডনের মতো জায়গায় তারা সন্ত্রাস করেছে। আন্তর্জাতিকভাবে তারা কেন সাজা পাচ্ছে?

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ