Skip to main content

চার দলে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৪০ জন, আ. লীগেই ৩১ জন

উত্তম কুমার হাওলাদার, কলাপাড়া (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,১৫নভেম্বর।। ১১৪ পটুয়াখালী-৪ (কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী-মহিপুর) থেকে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জাসদ থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন মোট ৪০ জন প্রার্থী। বিগত সময় অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহকারীর চেয়ে এবারের সংখ্যা প্রায় তিন গুন। তরুন, স্থানীয় এবং কেন্দ্রিয় হেভিওয়েট নেতারা রয়েছেন এ মনোনয়ন সংগ্রহের তালিকায়। নির্বাচনী মাঠে নানা আলোচনা, জল্পনা-কল্পনা থাকলেও শেষ পর্যন্ত কার ভাগ্যে জোটে দক্ষিণাঞ্চলের সবচেয়ে দামি এ আসনের দলীয় মনোনয়ন এনিয়ে দলীয় নেতা কর্মীসহ সাধারণ মানুষ রয়েছে অধীর আগ্রহে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ক্ষমতাশীন দল আওয়ামীলীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন মোট ৩১ জন। তারা হলেন, বর্তমান সাংসদ ও সাবেক পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রি মাহবুবুর রহমান তালুকদার, তার ভাই ব্রিগেডিয়ার জেনারেল(অব.) হাবিবুর রহমান, কলাপাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আলাউদ্দিন আহমেদ, কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান মোতালেব তালুকদার, পৌর মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম রাকিবুল আহসান, সরকারী এমবি কলেজের অধ্যক্ষ মো.দেলওয়ার হোসেন, কেন্দ্রিয় উপ-কমিটির সহ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল ইসলাম, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নিহার রঞ্জন মিলটন, ঢাকা মহানগর দক্ষিনের সহ-সভাপতি মুরসালিন আহম্মেদ, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মহ্বিুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সম্পাদক সৈয়দ নাসির উদ্দিন, কেন্দ্রিয় যুবলীগের সহ-সভাপতি শামিম আল সাইফুল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সুলতান মাহমুদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সাংগঠনিক মঞ্জুরুল আলম, কৃষকলীগ নেতা সৈয়দ আখতারুজ্জামান, কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুল আলম, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষনা পরিষদের প্রচার সম্পাদক শহিদুল্লাহ ওসমানী, ব্যবসায়ী ইউসুফ আলী, রাঙ্গাবালী উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক ড.আরিফ বিন ইসলাম, কৃষকলীগের কেন্দ্রিয় সাধারন সম্পাদক শামসুল হক রেজা, কেন্দ্রিয় যুবলীগের সদস্য নয়া মিয়া, শাহাবাগ থানা মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মাহিনুর আক্তার, রাঙ্গাবালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি হুমায়ন তালুকদার, রাঙ্গাবালী উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুদ্দিন মিয়া, বড়বাইশদিয় ইউপি চেয়ারম্যান এবিএম আব্দুল মন্নান, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ফাতেমা আক্তার, অগ্রনী স্কুল এন্ড কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শহীদুল ইসলাম বিশ্বাস, রাঙ্গাবালী উপজেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ দেলোয়ার হেসেন, বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নাসির উদ্দিন ও সবুজ ছায়া গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ রাশেদ(সিমন)। অপরদিকে জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন বিএনপি কেন্দ্রিয় কমিটির প্রশিক্ষন বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান, কলাপাড়া উপজেলা বিএনপির সাবেক আহবায়ক মনিরুজ্জামান, কলাপাড়া পৌর বিএনপি’র সাবেক সভাপতি গাজী গোলাম সরোয়ার ও শিল্পপতি আতিকুর রহমান। এছাড়া জাতীয় পার্টি থেকে দলটির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, মহিপুর থানা জাতীয় পার্টির সভাপতি আনোয়ার হোসেন, রাঙ্গাবালী উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শফিকুল আজম মুকুল এবং জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ-ইনু) থেকে একমাত্র মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন সাংবাদিক শিহাব পারভেজ মিঠু জানা গেছে। তৃণমূলের সাথে যাদের কোন রকমের যোগোযোগ কিংবা দলীয় কার্যক্রমে কখনও দেখা যায়নি তারাও মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। হঠাৎ করে এ আসনে প্রার্থীদের ছড়াছড়ি দেখে ভোটাররাও বিস্মিত। বর্তমানে এই নির্বাচনী এলাকার শহর থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রামের চায়ের টেবিলে ঝড় তোলা আলোচনাই হচ্ছে প্রার্থীদের মনোনয়ন ফরম ক্রয় নিয়ে। এদিকে মুজিব আর্দশে অনুপ্রাণিত মানুষের এখন একটাই দাবি দলীয় প্রধান জননেত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনা দুর্নীতিবাজ কাউকে নয়, ক্লীন ইমেজ ও জনপ্রিয়তার ভিত্তিতেই দেয়া হবে মনোনয়ন এটা যেন বাস্তবায়ন হয় নৌকার মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে।