প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাঙালীর অস্তিত্ব জড়িয়ে আছে আনন্দের উৎসব নবান্ন

কাজী বাবলা, পাবনা : প্রাণে প্রাণে শুরু হয়েছে উৎসবের আমেজ। ১লা অগ্রায়হণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ বাঙালীর নবান্ন উৎসবে কৃষক-কৃষানীর ঘরে ঘরে আনন্দ। এই নবান্নের উৎসব ঘিরে আমাদের অনেক আয়োজন।

আমার বাবা ছিলেন কৃষক আমি মাঠে বাবার খাবার নিয়ে যেতাম। মাঝে মাঝে ক্ষেতে ফসলের পরিচর্যা করতাম। বাবার সাথে ধানও কাটতাম। আমাদের বাড়ীতে আজকের এই নবান্নের দিনে উৎসবের আমেজ পড়ে যেত। বাড়ীতে মেহমান আসতো। নতুন ধানের পিঠাপুলি বানাতো মা। বাঙালীর অস্তিত্বে জড়িয়ে আছে নবান্ন। বাঙালী সংস্কৃতির এ যেন এক গ্রাম বাংলার উৎসব। আজকে যারা মাঠে মাথার ঘাম পায়ে ফেলে শষ্য ফলান, দেশের মানুষের জন্য খাবার উৎপাদন করেন, তারাই এ জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। আবহমান কাল থেকেই নবান্ন কৃষান-কৃষানীর ঘরে আনন্দ বয়ে আনে।

বৃহস্পতিবার নবান্ন উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তবে পাবনার জেলা প্রশাসক মো: জসিম উদ্দিন এ সব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, নবান্ন উৎসব ঘিরে বাঙালীর মধ্যে উৎসবের আমেজ ছরিয়ে পরে। এটা বাঙালী জাতি সত্তার সংস্কৃতিকে তুলে ধরে। মূলত এই সময় টায় কৃষক ঘরে ধান তুলে। চারিদিকে নতুন ধানের মিষ্টি গন্ধে মাতয়ারা হয় গ্রাম। রসের পিঠা খেতে জামাই আসে শ্বশুর বাড়িতে। এমনই মধুর সংস্কৃতি বাঙালীর। এটাকে ধরে রাখতে হবে। এটাই বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার সকালে পাবনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে সদর উপজেলার মালিগাছা ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামে মাঠে ধান কেটে নবান্ন উৎসবের সুচনা করেন জেলা প্রশাসক মো: জসিম উদ্দিন। এ সময় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর পাবনার উপ-পরিচালক কৃষিবিদ আজাহার হোসেন’র সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন পাবনার ঈশ^রদী ইক্ষু গবেষণা ইনিস্টিটিউট এর মহাপরিচালক ড. আমজাদ হোসেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর পাবনার অতিরিক্ত উপ-পরিচালক ড.আজিজুল হক, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাওয়াল বিশ^াস, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামসুন্নাহার রেখা, মালিগাছা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাছুম বিল্লাহ প্রমুখ।

নবান্ন উৎসবে কৃষি কর্মকর্তা ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ এলাকার বিপুল সংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। অনষ্ঠানটি সঞ্চালনা করে ডিপ্লোমা কৃষিবিদ ইনিস্টিটিউট পাবনা জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক আবু সাইদ শিখন। নবান্ন উৎসব উপলক্ষে অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলের মাঝে নবান্নের পিঠা বিতরণ করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ