প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘ওর মতো অধিনায়ক আর কখনই পাবো না’(ভিডিও)

আক্তারুজ্জামান : জিম্বাবুয়ে সিরিজ বেশ সফলতার সঙ্গেই শেষ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এই সিরিজ শেষে এক সপ্তাহের বিশ্রাম নিয়ে আবারও মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল। ঘরের মাঠে ক্যারিবীয়দের স্বাগত জানাবে টাইগাররা। কিন্তু এরই মাঝে অনিশ্চয়তায় পড়েছেন মাশরাফি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাঠে থাকার ফলে তাকে এই সিরিজে পাওয়া যাবে কি না তা নিশ্চিতভাবে বলতে পারছেন না কেউই। তবে দলে মাশরাফির একটা প্রভাব আছে।

ঢাকা টেস্ট শেষ হওয়ার পর সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন বিসিবি (বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড) এর সভাপতি নাজমুল ইসলাম পাপন। সেখানেই মাশরাফি প্রসঙ্গ উঠলো।

এসময় তিনি মাশরাফিকে নিয়ে বলেন, ‘সে কিন্তু খেলোয়াড় হিসেবে নয়, প্রধানত অধিনায়ক হিসেবেই দলের সাথে রয়েছে। অধিনায়ক হিসেবেই সে আমাদের কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ওর মত অধিনায়ক আমরা খুঁজে পাচ্ছি না এবং কখনও পাব বলেও মনে হয় না। সেদিক থেকে চিন্তা করলে আমাদের ধারণা সে বিশ্বকাপের পর হয়তো বা অবসর নিতে চাইবে।’

এরপর মাশরাফির অবসরের বিষয়ে বলেন, ‘ওর (মাশরাফি) ব্যাপারটি একটু আলাদা। সে যে কতদিন খেলবে আমরা আসলে নিশ্চিত নই। আর ও যে শারীরিক অবস্থা নিয়ে খেলছে সেটাই তো অনেক কিছু।’

বিসিবি সভাপতি আরও বলেন, ‘মাশরাফি হয়তো বিশ্বকাপের পর অবসরে যাবে। সেটি যদি হয় মাত্র কয়েক মাসের ব্যাপার। এটা হলে এর চেয়ে ভালো প্রস্থান আর কিছু হতে পারে না। তবে সে ক্রিকেট ছেড়ে রাজনীতিতে গেলেও ক্রীড়াক্ষেত্রে জোরালো অবস্থান রাখতে পারবে বলেই আমার বিশ্বাস।’

ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফির রাজনীতিতে আসাটা কীভাবে দেখছেন, এমন প্রশ্নে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, রাজনীতিতে আসার সিদ্ধান্তটা ঠিকই নিয়েছে মাশরাফি। ওর যে শারীরিক অবস্থা, এখনো যে খেলছে, এটাই তো অনেক। সে আমাদের দলে অধিনায়ক হিসেবে খেলে, খেলোয়াড় হিসেবে না। ওর অধিনায়কত্ব আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

বিসিবি সভাপতি আরো বলেন, ওর মতো অধিনায়ক খুঁজে পাচ্ছি না, পাব বলেও মনে হয় না। বড়জোর বিশ্বকাপের পর হয়তো অবসরে যাবে অধিনায়ক। সেটি যদি হয় মাত্র কয়েক মাসের ব্যাপার, এটা হলে এর চেয়ে ভালো প্রস্থান আর কিছু হতে পারে না। তবে সে ক্রিকেট ছেড়ে রাজনীতিতে গেলেও ক্রীড়াক্ষেত্রে জোরালো অবস্থান রাখতে পারবে বলেই আমার বিশ্বাস।

তিনি আরো বলেন, সাকিবও করতে চেয়েছিল, কিন্তু সে পিছিয়ে এসেছে এসব কথা চিন্তা করে। যেহেতু সে আরও চার-পাঁচ বছর খেলবে। সাকিবকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ঠিক আছে তুমি খেলো। তবে মাশরাফির ব্যাপারটা ভিন্ন। ওর যে শারীরিক অবস্থা, এখনো যে খেলছে, এটাই তো অনেক।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ