প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণায় বরিশালে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে যারা…

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল : তৃণমূল পর্যায়ে জনপ্রিয়তায় যারা এগিয়ে তাদেরকেই মনোনয়ন দেয়া হবে। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণায় বরিশালে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে রয়েছেন মহান মুক্তিযুদ্ধের দুই বীর সৈনিক ও দুই মুক্তিযোদ্ধার সন্তান।

এরমধ্যে দুইজন বীর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সদস্য হিসেবে এলাকায় ব্যাপক উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের মাধ্যমে দলের নেতাকর্মী থেকে শুরু করে তৃণমূল পর্যায়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। অপর দুই তরুণ মনোনয়ন প্রত্যাশী মুক্তিযোদ্ধার সন্তান জনপ্রতিনিধি না হয়েও নিজস্ব অর্থায়নে এলাকার উন্নয়নের অগ্রণী ভূমিকা পালন করে দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তরে জনপ্রিয়তা অর্জন করছেন। ইতোমধ্যে তারা চারজনই চারটি আসন থেকে দলীয় প্রার্থী হতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহের পর তা পূরণ করে জমা দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ছাত্রজীবন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় থেকে জনপ্রিয়তা অর্জনকারী ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন, বরিশাল-১ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহান মুক্তিযুদ্ধের মুজিব বাহিনীর আঞ্চলিক কমান্ডার আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ। বরিশাল-২ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস। বরিশাল-৩ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মো. মিজানুর রহমান। এলাকার ব্যাপক উন্নয়নে তার রয়েছে অগ্রণী ভূমিকা। এছাড়া বরিশাল-৫ আসনে স্বেচ্ছাসেবী এস আর সমাজ কল্যাণ সংস্থার মাধ্যমে এক লাখ মানুষকে আর্থিক সহায়তা করে স্বাবলম্বী করা বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সালাহউদ্দিন রিপন।

জানা গেছে, নারী জাগরণের অগ্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাস্তবমুখী বিভিন্ন কর্মকান্ডকে অনুকরন করে জনপ্রতিনিধি না হয়েও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এস আর সমাজকল্যাণ সংস্থা’র ব্যানারে দীর্ঘদিন ধরে এগিয়ে যাচ্ছেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সালাহউদ্দিন রিপন। বরিশাল-৫ (সদর) আসনের দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারের নারীদের নিজ উদ্যোগে আর্থিক সহযোগিতা প্রদানের মাধ্যমে ছোট ছোট খামার করে দিয়ে স্বাবলম্বী করে তুলেছেন।

স্বেচ্ছাসেবী এস আর সমাজকল্যাণ সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান এবং কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপকমিটির সদস্য আলহাজ্ব মো. সালাহউদ্দিন রিপন বলেন, মমতাময়ী মা শেখ হাসিনার বাংলাদেশে কোন নারী যেন ফতোয়াবাজদের কারণে ঘরকুনো না থাকে, কেউ যেন চিকিৎসার অভাবে ধুকে ধুকে মারা না যায়, অর্থাভাবে কোন শিক্ষার্থী যেন অকালে ঝড়ে না পরে, বাসস্থানের অভাবে কেউ যেন খোলা আকাশের নিচে বসবাস না করে এ মূলমন্ত্র নিয়ে তিনি নিজ উদ্যোগে এগিয়ে যাচ্ছেন। ইতোমধ্যে তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে সরেজমিন পরিদর্শন করে দুঃস্থ পরিবারগুলোকে স্বাবলম্ভী করার জন্য ছোট-ছোট খামার তৈরিতে ৩০ হাজার পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা, ২৭ হাজার মানুষের বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসা (অপারেশনসহ), সহস্রাধিক দুঃস্থ্য পরিবারকে বাসস্থান নির্মাণে আর্থিক সহযোগিতা, প্রায় দশ হাজার শিক্ষার্থীকে আর্থিক অনুদান প্রদানের মাধ্যমে বরিশাল সদর আসনের প্রায় একলাখ মানুষকে বিভিন্ন ধরনের সহযোগিতা করেছেন। তার আর্থিক সহযোগিতার ওইসব পরিবারগুলো আজ পুরোপুরি স্বাবলম্ভী হয়েছে। পাশাপাশি সদর উপজেলার বিভিন্ন মসজিদ ও মন্দির উন্নয়নে সাধ্যমতো আর্থিক অনুদান প্রদান করেছেন। সরকারের নানামুখী উন্নয়ন কর্মকান্ডের প্রচারনার জন্য তিনি দলীয় নেতৃবৃন্দদের নিয়ে সদর আসনে একশ’টি নারী কমিটি গঠণ করে নিয়মিতভাবে উঠান বৈঠক করে ঘরকুনো নারীদের অধিকার আদায়ের পথ দেখিয়েছেন।

ফলশ্রুতিতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৫ (সদর) আসন থেকে সালাউদ্দিন রিপনকে নৌকা মার্কার প্রার্থী হওয়ার জন্য সুবিধাভোগি লক্ষাধিক মানুষ একাধিকবার সমাবেশ করে জোরালো দাবি তুলেন। ওই সমাবেশের মাধ্যমে সদর আসনের বাসিন্দারা সালাউদ্দিন রিপনকে নৌকা প্রতীক দেয়ার জন্য দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আহবান করেন। তাদের দাবির মুখে এ আসনের সম্ভাব্য অন্যসব প্রার্থীদের মধ্যে একমাত্র বরিশাল সদরের স্থায়ী বাসিন্দা হিসেবে সালাহউদ্দিন রিপন নৌকা প্রতীক বরাদ্দ পেতে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহের পর তা পূরণ করে জমা দিয়েছেন।

বরিশাল সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার আব্দুর রব হাওলাদার বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে সদর আসনে কেউ নারীদের সংগঠিত করতে পারেনি কিন্তু সালাহউদ্দিন রিপন নারীদের স্বাবলম্ভী করার পাশাপাশি ১০০টি কমিটি করে তাদের সংগঠিত করেছেন। দীর্ঘদিন থেকে সালাউদ্দিন রিপনের প্রতিটি সভা, সমাবেশ ও গণসংযোগে নারীদের অংশগ্রহণই বলে দিচ্ছে এ আসনে বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে (সালাউদ্দিন রিপন) নৌকা প্রতীক উপহার দিলে নারীরাই বিজয় ছিনিয়ে আনবেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ