প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০৪০ সালের মধ্যে সংসদে নারী-পুরুষের সমান প্রতিনিধিত্ব প্রতিষ্ঠিত হবে : সাফিয়া খাতুন

মো: মারুফুল আলম : মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুন বলেছেন, যদি আমাদের দল ক্ষমতায় থাকে ইনশা আল্লাহ আপনারা ২০৪০ সালের মধ্যে সংসদে নারীর সংখ্যা ১৫০ জন দেখতে পাবেন। ১৫০ জন না হলেও সংখ্যায় সেটা সর্বনিম্ন ১২০ জন হবে। কারণ জননেত্রী শেখ হাসিনা চান, নারীরা এগিয়ে যাক।

তিনি আরও বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদেরকে বলেছেন যদি আমরা যোগ্য হই তাহলে মনোনয়ন পাবার ক্ষেত্রে আমাদের কোন সমস্যা হবে না। আগেও আমাদের প্রায় ১৪/১৫ জন সাংসদ হয়েছে। সংরক্ষিত আসনে ৫০/৫৫ জন নারীতো আছেই। নারীর ক্ষমতায়নে জননেত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বাসী। ইনশাআল্লাহ অবশ্যই সংখ্যা আরও বাড়বে ।

একটি আসনে বেশ কয়েকজন মনোনয়ন চাইবেন, এক্ষেত্রে নারীদেরকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে কি না এর উত্তরে সাফিয়া বলেন, হ্যাঁ এই বিবেচনা আমাদের নেত্রীর মধ্যে আছে। সেটা করেনও উনি। নারীদের জন্য নেত্রী সবসময় কথা বলেন এবং তাদেরকে সহযোগীতা করার জন্য সবাইকে উনি নির্দেশ দেন।  মেয়েরা মায়ের জাতি। তাই তারা তাদের দায়িত্ব অবশ্যই পালন করবে এবং নারীরা অল্পতেই তুষ্ট।
মনোনয়ন বোর্ড এ ব্যাপারে কতটুকু সচেতন বা আপনারা নারীনেত্রীরা মনোনয়ন বোর্ডকে কিভাবে চাপ দিচ্ছেন জানতে চাইলে সাফিয়া খাতুন বলেন, যেখানে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী দিতে চাচ্ছেন, সেখানে চাপের কোন প্রশ্ন থাকে না। কারণ নেত্রীতো আমাদেরকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। নারীদের ক্ষমতায়নের জন্য উনার কোন বাধা নেই।

নারীদের মধ্যে মনোনয়ন পাবার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য কে কে আছেন এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, সর্বপ্রথম তারানা হালিমকে আমি গন্য করবো। তিনি মন্ত্রী ছিলেন এবং আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথেও জড়িত ছিলেন। এরপর রোকেয়া প্রাচী, শমি কায়সারসহ আরও অনেকে আছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত