প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনাই প্রধান লক্ষ্য : ববি হাজ্জাজ

তাসমিয়া নুহিয়া আহমেদ : ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক মুভমেন্টের (এনডিএম) প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ বলেছেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে চায় তার দল। তবে তিনি এও জানান, পুরো বিষয়টিই এখন নির্ভর করছে নির্বাচন কমিশনের ওপর। নির্বাচন কমিশনের কাছ থেকে এখনো রেজিস্ট্রেশন পায়নি এনডিএম। নিবন্ধন পেলে তারা এককভাবেই ১শ’র বেশি আসনে মনোনয়ন দিতে পারবে। সাক্ষাৎকারে ববি হাজ্জাজ জানান, নিবন্ধনের জন্য তার দল নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করে ২০১৭ সালের ২৩ ডিসেম্বর। কিন্ত গত সেপ্টেম্বরে নির্বাচন কমিশন জানিয়ে দেয়, রাজনৈতিক দল হিসাবে এনডিএমকে নিবন্ধন করা হবে না। নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আইনের শরণাপন্ন হলে গতমাসের মাঝামাঝি হাইকোর্ট বিভাগ এনডিএমের পক্ষে রুল দেন। নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তকে অযৌক্তিক বলেও অভিহিত করেন উচ্চ আদালত। কিন্তু তারপরও কোন অগ্রগতি হয়নি।

ববি হাজ্জাজ জানান, ২০১৭ সালের ২৪ এপ্রিল তাদের রাজনৈতিক দলটির যাত্রা শুরু হয়। এরপর থেকেই জবাবদিহিমূলক গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করে যাচ্ছে এনডিএম। তরুণ এই নেতা মনে করেন, গণতন্ত্র হচ্ছে এমন একটি অসাধারণ সরকারপদ্ধতি, যাতে সাধারণ মানুষের ক্ষমতা থাকবে তাদের শাসক নির্বাচনের। গণতন্ত্রের চূড়ান্ত লক্ষ্য হচ্ছে, প্রতিটি মানুষের আত্মমর্যাদা ও মৌলিক অধিকারকে সমুন্নত রাখা।

এছাড়া সামাজিক ন্যায়বিচার, অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন, সামাজিক বন্ধনকে দৃঢ় করা এবং আন্তর্জাতিক শান্তির জন্য কার্যকর পরিবেশ তৈরি করাও গণতন্ত্রের গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্যগুলোর মধ্যে রয়েছে। যদি গণতন্ত্রকে জবাবদিহিতার মধ্যে আনা যায়, কেবল তাহলেই এসব অর্জন সম্ভব হবে।

ববি হাজ্জাজ আরো বলেন, রাজনৈতিক দলগুলো অহিংস রাজনীতির চর্চা করুক, এমনটাই চায় দেশের মানুষ। তিনি মনে করেন, নির্বাচনে অংশ নিলে দেশের মানুষ তাকে এবং তার দলকে ভোট দেবে; কারণ জনগণ যে ধরনের রাজনীতি চায়, তার দল সেই রাজনীতিরই চর্চা করে থাকে।

তিনি জানান, দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে এবং একটি জবাবদিহিমূলক সরকার গঠনে তিনি ও তার দল এনডিএম প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

উল্লেখ্য, ববি হাজ্জাজ ২০১২ সালে সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বিশেষ উপদেষ্টা নিযুক্ত হয়েছিলেন। এরপর তিনি তার দলের প্রধান নির্বাচন সমন্বয়কারী হন। ২০১৪ সালের সাধারণ নির্বাচনের সমালোচনা করে আলোচিত হন ববি হাজ্জাজ। সম্পাদনা : সালেহ্ বিপ্লব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ