প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচন পেছানোর বিষয়ে পরে জানাবে ইসি

রাইজিংবিডি : নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনের তারিখ পেছানোর কথা বলেছে। নির্বাচন কমিশন বলেছে, জানুয়ারিতে অনেক বিষয় আছে, তারপরও নির্বাচন কমিশন বৈঠকে বসে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে পরে এ বিষয়ে জানাবে।

বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

সচিব বলেন, ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন হলে এখানে অনেকগুলো রি-ইলেকশন করতে হতে পারে। গেজেটের ব্যাপার আছে, বিশ্ব ইজতেমার ব্যাপার আছে। সবকিছু মিলিয়ে জানুয়ারিতে করা হলে নির্বাচনটা আমাদের জন্য অনেক কষ্টদায়ক হয়ে যাবে।

তিনি বলেন, আজ নয়াপল্টনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছে ইসি। ভবিষ্যতে এমন ঘটনা যেন না হয়, বিষটি ওনারা খতিয়ে দেখবেন। আসলে ওখানে বিষয়টা কী হয়েছে, এটা পুলিশের কাছে জানতে চাওয়া হবে।

এমন ঘটনার পর নির্বাচন কমিশন আরো জোরালো পদক্ষেপ নেবে কি না? এ প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, যখন তফসিল ঘোষণা করা হয়, সকল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ জনপ্রশাসন নির্বাচন কমিশনের ওপর ন্যস্ত হয়। সুতরাং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নির্বাচন কমিশনের ওপর ন্যস্ত। নির্বাচন কমিশন যেভাবে তাদের নির্দেশনা দেবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সেভাবে কাজ করবে।

ভালো পরিবেশ চেয়েছে ঐক্যফ্রন্ট, আপনারা কী পদক্ষেপ নিচ্ছেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, সকল জোটে, আমরা খেয়াল করেছি, মনোনয়নপত্র বিতরণ এবং জমা প্রদান উৎসবমুখরভাবে চলছে।

সচিব আরো বলেন, বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ আচরণবিধি লঙ্ঘন নয়। তবে নয়াপল্টনে যে সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে, সেটা কেন ঘটল তা আমরা খতিয়ে দেখব। উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের বিষয়টি স্বাভাবিক, এটাকে আচরণবিধি লঙ্ঘন বলা যাবে না। আওয়ামী লীগের ক্ষেত্রেও উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের চিত্র আমরা দেখেছি।

রাষ্ট্রীয় প্রটোকল ব্যবহার করে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবনে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন, এটা আচরণবিধি লঙ্ঘন কি না? এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, আমরা দেখব, এটা আচরণবিধি লঙ্ঘন কি না।

আরেক প্রশ্নের জবাবে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিতরণের পরে এবং বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু হলে শো ডাউন না করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, বিষয়টা এমন না। দলীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীরা উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করবেন, এটা স্বাভাবিক বিষয়। আমরা চিঠি দিয়েছি, যেন ভবিষ্যতে তারা যখন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়ন ফরম জমা দেবেন, সেখানে যেন বড় ধরনের শো ডাউন না হয়।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ