প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০১৯ সালে তেলের উৎপাদন কমাতে আলোচনা করছে ওপেক

নূর মাজিদ : বিশ্বের বৃহত্তম অপরিশোধিত জ্বালানি তেল উৎপাদক দেশগুলোর জোট ওপেক এবং এর সহযোগীরা ২০১৯ সাল নাগাদ বিশ্ববাজারে তেলের সরবরাহ কমিয়ে আনার লক্ষ্যে আলোচনা শুরু করেছে। মূলত, যে দেশগুলো ওপেক জোটভুক্ত নয় তবে ওপেকের সঙ্গে সহযোগিতা করে বিশ্বে তেলের বাজারে সরবরাহ নিয়ন্ত্রন করে তারা এইসব সহযোগীর অন্তর্ভুক্ত। এই সকল সহযোগীর সঙ্গে আলোচনা করে ওপেক বিশ্ববাজারে তেলের বাড়তি সরবরাহ এবং এর প্রেক্ষিতে সৃষ্ট মুল্যহ্রাস নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করবে। ২০১৯ সালে প্রতিদিন ১৪ লাখ ব্যারেল কম জ্বালানি তেল সরবরাহ করতে চায় ওপেক। বর্তমানে ওপেকের বাহিরে সংস্থাটির বৃহৎ সহযোগী দেশ রাশিয়া।

ওপেকের অভ্যন্তরীণ সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে তেলের সরবরাহ বৃদ্ধির একমাস পরেই মুল্যহ্রাসের প্রেক্ষিতে উৎপাদন কমানোর আলোচনায় উদ্যোগী হয়েছে ওপেক। এই লক্ষ্যে সৌদি আরব, রাশিয়া এবং আরও কয়েকটি বৃহৎ ওপেকভুক্ত দেশের জ্বালানিমন্ত্রীগণ গত রোববার আবুধাবিতে একটি বৈঠকে অংশ নেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শীর্ষ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, বৈঠকে ১৪ লাখ ব্যারেল দৈনিক উৎপাদন কমানো অত্যন্ত ন্যায়সঙ্গত মাত্রা বলেই উপস্থিত অর্থমন্ত্রীরা একমত পোষণ করেন।

ইতোপূর্বে, রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা করেই চলতি বছরের জুন মাসে জ্বালানি তেলের উৎপাদন বৃদ্ধি করেছিল ওপেক। বিশেষ করে, পণ্যটির মূল্য কমাতে সৌদি আরবের ওপর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রা¤েপর চাপের প্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেয় ওপেক। রয়টার্স

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ