Skip to main content

ঝিকরগাছার আলহাজ্ব মিজানুর রহমান বিএনপির মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন

জাহিদুল কবীর মিল্টন, যশোর প্রতিনিধি: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় সংসদের ৮৬ নং যশোর-২ চৌগাছা ঝিকরগাছা সংসদীয় এলাকায় বিএনপি দলীয় মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন যশোর জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নির্বাচনী এলাকার দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক নেতা আলহাজ্ব মিজানুর রহমান খান। দলীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম জমা নেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য রবিউল ইসলাম রবি, স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা সামছুর রহমান সামছু, ছাত্রদল নেতা হুমায়ুন কবীর সুমন প্রমুখ। বুধবার দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে সকাল ১১টায় একটি বিশাল মিছিল সহকারে দলের নয়াপল্টনস্থ বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যান বিএনপি নেতা আলহাজ্ব মিজানুর রহমান খান। ব্যানার ফেস্টুন, প্লাকার্ড সম্বলিত মিছিলটি শেষে দলীয় কার্যালয়ের সামনে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতা করেন মিজানুর রহমান খান। তিনি বলেন, দলের এই ক্রান্তিকালে সকল ভেদাভেদ ভুলে নেতাকর্মীদের ধানের শীষ প্রতীকের পক্ষে মাঠে কাজ করতে হবে। দলের স্বার্থে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বিএনপি একটি বৃহত্তম রাজনৈতিক দল। এই দলে প্রতিটি নির্বাচনী এলাকায় একাধিক যোগ্য নেতা রয়েছেন যারা প্রত্যেকেই এমপি নির্বাচন করার যোগ্যতা রাখেন। এই জন্য দলের একাধিক নেতা মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। দলীয় কার্যালয়ে জমা দিচ্ছেন। দলীয় মনোনয়ন বোর্ডে সাক্ষতকারও দিবেন। সব শেষে দল যাকে যোগ্য মনে করবে তাকে মনোনয়ন দিবেন। ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে যিনি মাঠে যাবেন আমরা সবাই তার পক্ষে কাজ করবো। এখানে লবিং গ্রুপিং করার কোন সুযোগ নেই। ধানের শীষ প্রতীকের পক্ষে সবাই ঐক্যবদ্ধ থেকে নির্বাচনে দলকে বিজয়ী করার মাধ্যমে আমাদের নেত্রী গণতন্ত্রে মা বেগম খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত করতে হবে। তিনি মরহুম জননেতা তরিকুল ইসলামকে গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে বলেন, আমাদের অভিভাবক তরিকুল ইসলাম আজ আর আমাদের মাঝে নেই। এই মুহুর্তে তাকে বড্ড বেশি মনে পড়ছে। এই নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে যশোরের ৬টি আসনে দলীয় প্রার্থীকে জয়যুক্ত করার মাধ্যমে আমাদের অভিভাবক তরিকুল ইসলামের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে হবে। আগামীর রাষ্ট্রনায়ক তারেক রহমানের হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। তারেক রহমানের দেশে ফেরার পথ সুগম করতে হবে। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন চৌগাছা উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাক ইউনুস আলী, সহ সভাপতি ও সাবেক সভাপতি আব্দুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল ওয়াহেদ, ঝিকরগাছা উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক খোরশেদ আলম, বিএনপি নেতা হাজী মিজান, যুবদল নেতা আব্দুল মান্নান, মুস্তাফিজুর রহমান মোস্তা, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম চঞ্চল, ছাত্রদল নেতা সালাহ উদ্দিন,আবু বক্কার, স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নেতা আসাদুজ্জামান আসাদ, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবু মুছা মিন্টু, হাফিজুর রহমান, ফরিদুজ্জামানসহ নির্বাচনী এলাকার দুই উপজেলার ২২টি ইউনিয়নের বিএনপি ও এর সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী। এদিকে বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান খান এই আসনে দলীয় মনোনয়ন পাচ্ছেন এমন খবরে গোটা নির্বাচনী এলাকায় দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনা বিরাজ করছে। দীর্ঘদিন হামলা মামলার শিকার বাড়ি ঘর ছাড়া নেতাকর্মীরা এখন মাঠে সরব। তারা আসন্ন নির্বাচনে এই নির্বাচনী এলাকায় ধানের শীষ প্রতীকের পক্ষে কাজ করার জন্য উদগ্রীব।তারা মনে করেন এই নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীকে জয়যুক্ত করার কোন বিকল্প নেই। কারন এই জয়ের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের অন্যায় অত্যাচার থেকে দেশ তথা জাতীকে রক্ষা করতে হবে। বেগম খালেদা জিয়াকে কারা মুক্ত করতে হবে।

অন্যান্য সংবাদ