প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৭ দিনেই ভোক্তা অভিযোগের নিম্পত্তি

মোহাম্মদ রুবেল: পণ্যে ভেজাল দেওয়া, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য তৈরি, বিক্রি, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি এবং ওজন কম দেওয়াসহ বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে বছরব্যাপি ভেজাল বিরোধী অভিযান চালাচ্ছে। এছাড়া ভোক্তাদের দায়ের করা মামলা ৭ দিনের মধ্যেই নিষ্পত্তি করা হয় বলে জানিয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

জানা যায়, ভোক্তাদের দায়ের করা অভিযোগের মধ্যে সবচেয়ে বেশি অভিযোগ আসে ভেজাল ও মেয়াদ উর্ত্তীর্ণ ওষুধের বিরুদ্ধে। অভিযোগের ভিত্তিতে আদায়কৃত জরিমানার এক চতুর্থাংশ ভোক্তাদের হয়। অপর দিকে ব্যবসায়ীরা অধিক দামে পণ্য বিক্রি করলেও এখনও অনেক ভোক্তাই জানেন না তাদের অধিকার বা এর প্রতিকার বিষয়। যদিও ভোক্তার স্বার্থ রক্ষায় প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতর, নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ, প্রতিযোগিতা কমিশন।

জানতে চাইলে জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম লস্কর আমাদের অর্থনীতিকে বলেন, আমাদের জনবল সংকট রয়েছে। ৬৪টি জেলাতেই আমরা বিচারক দিতে পারিনি। সারা দেশে আরো ৪৫জন বিচারক রয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় অধিদফতরের ১৪ জন বিচারক রয়েছেন। এ সংকট অবস্থায়ও ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতরের দায়ের করা মামলা ৭ দিনের মধ্যেই নিষ্পত্তি করার চেষ্টা করি।

তিনি আরো বলেন, আমাদের এখানে ছোট থেকে বড় সব ধরণের কোম্পানির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ আসে। এরমধ্যে পণ্যের উৎপাদন ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ না থাকা, ম‚ল্য তালিকা না থাকা, নির্ধারিত দামে চেয়ে বেশি ম‚ল্য নেওয়ার অভিযোগ আসে। এছাড়া মিথ্যা বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারিত করা, পরিমাপক যন্ত্রে কারচুপির, অবহেলা দ্বারা সেবাগ্রহিতার জীবন বিপন্ন করা, স্বাস্থ্য হানি ঘটানোর পণ্য বিক্রয়কার, খাদ্য অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে উৎপাদন বা পরিবেশন করা বিষয়ে অভিযোগ আসে।

জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতর গত নয় বছরে বাজার তদারকির মাধ্যমে পণ্যে ভেজাল, ম‚ল্য কারসাজিসহ বিভিন্ন অপরাধে ৩৭ হাজার ৩৯২টি প্রতিষ্ঠানকে দোষী সাব্যস্ত করেছে। এসব প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আদায় করা হয়েছে ২৮ কোটি ৭৬ লাখ ৮৭ হাজার ৩শ’ টাকা। গত নয় বছরের মধ্যে এবারই সবচেয়ে বেশি অভিযোগ এসেছে। এর আগে ২০১৫ সালে অভিযোগ এসেছিল মাত্র ২২৫টি। পরের বছর এ সংখ্যা বেড়ে ১ হাজার ৬২২টিতে উন্নীত হয়। আর ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের ১৪ মার্চ পর্যন্ত অভিযোগের সংখ্যা ৬ হাজার ৪৪৮টিতে দাঁড়িয়েছে। এ সময়ের মধ্যে অভিযোগ নিষ্পত্তি করা হয়েছে ৫ হাজার ৬৪টি। গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ৬ হাজার ১৪০টি অভিযোগ আসে। ওই বছর শতভাগ অভিযোগ নিষ্পত্তি করা হয়েছে। এছাড়া ২০১০-২০১৪ পর্যন্ত অভিযোগ আসে ১৭৯টি, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে ২৬৪টি, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৬৬২টি অভিযোগ আসে। যা বিগত বছরগুলোতেই নিষ্পত্তি করা হয়েছে।

সম্পাদনায়: সোহেল রহমান, হুমায়ুন কবির খোকন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত