প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উঠতি বয়সীদের উদ্দেশ্যে…!

বয়স আপনার ১৪-১৮ অথবা এর চেয়ে কম অথবা এর চেয়ে একটু বেশি । কেবল যৌবনের রেখা ফুটে উঠছে আপনাদের মধ্যে। সবকিছুতেই অসীম আগ্রহ, অসীম আবেগ। একজন সুন্দরী মেয়ে দেখলেন অথবা সুন্দর কিছু গুণের মেয়ে দেখলেন। ব্যস্ বুকের মধ্যে চিন চিন ব্যথা ! অতঃপর প্রতিটা দিন নতুনভাবে দেখতে দেখতে দুর্বল হয়ে পড়লেন মেয়েটার ওপর। এগুলো অস্বভাবিক কিছু না। বলতেও পারছেন না, সইতেও পারছেন না। কীভাবে মনের কথা প্রকাশ করবেন সেটা ভাবতেই আপনার রাতের ঘুম হারাম, পড়াশোনা বলতে যে কিছু একটা আছে সেটা বেমালুম ভুলে যাবেন। কি করবেন? এই বয়সটা এরকমই, খুব খারাপ। কোন কিছুতে কৌতুহল হলেই সেটার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়া চাই।

আর আবেগটাও অনেক কড়া থাকে এই বয়সে। একটু বিশেষ্যত্ব যার মধ্যে দেখবেন তাকেই ভালো লাগবে, তাকে নিয়ে ভাবতে ভালো লাগবে। হয়তো একদিন সাহস করে বলেই ফেলবেন যে তাকে আপনি কতটা চান? ঐদিক থেকে হয়তো সাড়া পড়বে সমান তালে। এরপর? সমান তালে আপনার ক্যারিয়ারটাও ধ্বংস হবে। যে মেয়েটাকে আপনি আবেগ দিয়ে বসে আছেন সে আগামীকাল আরেকজনের বউ হবে কারণ এই বয়সের সর্ম্পকগুলো শতকরা একভাগও সফল হয় না। একজন মেয়ে আপনার ছাত্রকালীন বয়সে শুধু সুন্দর সময় এবং অর্থ নষ্ট করবে, কিচ্ছু দিতে পারবে না, এক তিল পরিমাণও না; শুধু কিছুক্ষণের মনের আনন্দ ছাড়া। আপনার সুন্দর আগামীটা নষ্ট করে মেয়েটা বাস্তবতার কাছে হার মেনে আগামীতে আরেক জনের সাথে খুব ভালোই থাকবে। কিন্তু আপনি? আপনি প্রতিটা পদে পদে হারবেন বিকারগ্রস্থ হয়ে পড়বেন। বাবা মা আত্মীয়-স্বজনের আশা-ভরসাগুলোকে পরাজিত করে নিজেও একটা সময়ে নিজের অস্তিত্বের কাছে হারবেন। কিন্তু সেই সময়টায় আপনি কাউকে কাছে পাবেন না।

যে মেয়েটার জন্য আপনি আপনার আগামীটাকে নষ্ট করেছেন, ঘণ্টাপর ঘণ্টা ফোন বা ম্যাসেজে কথা বলে অথবা সামনা-সামনি দেখা করে তখন সে নিজ ইচ্ছায় দেখা করা তো দূরে থাক ফোন দিয়ে একবারের জন্য জানতে চাইবে না যে আপনি কেমন আছেন। এটাই বাস্তবতা। আপনার কর্মফল শুধু আপনাকেই ভোগ করতে হবে। যারাও বা আপনার পাশে ছিলো তারাও আপনার পাশে থাকবে না। কারণ ব্যর্থ মানুষদের স্থান এই পৃথিবীতে নেই। এই বয়সে আপনাকে উদ্দেশ্য ঠিক করতে হবে। আপনার আশে-পাশে যারা আছে তাদেরও উদ্দেশ্য বুঝতে হবে। বর্তমানে আমাদের দেশের যা অবস্থা আমি প্রেম বা সর্ম্পকে জড়াতে নিষেধ করবো না বা নিষেধ করলেও কেউ কানে নেবে না, এটা আমি জানি। তবে এগুলোরও একটা সময় আছে। এতটুকু বলবো ১৪-১৮ বছর বয়সে দয়া করে এগুলোতে জড়িয়ে নিজের, নিজের পরিবারের সর্বনাশ ডেকে আনবেন না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ