প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশের মেয়েরা #মিটু #মিটু করতাছে

তসলিমা নাসরিন, ফেসবুক থেকে : বাংলাদেশের মেয়েরা #মিটু #মিটু করতাছে। যে পুরুষগুলার শয়তানি বদমাইশি তুইলা ধরতাছে, তারা যেমন বহাল তবিয়তে ছিলো, তেমন বহাল তবিয়তেই আছে। এখন পর্যন্ত এক্টারও মাথা হেট হয় নাই, এক্টাও মাফি মাঙ্গে নাই, এক্টারও চাকরি গেছে বইলা, এক্টারেও কোনো কোম্পানি থেইকা, কোনও অরগানাইজেশন থেইকা বহিস্কার করা হইছে বইলা এখন পর্যন্ত শুনি নাই। আমার মনে হয় এইসব #মিটু তাদেরে জিরো বানাইবার বদলে হিরো বানাইতাসে। মেয়েদের সাথে ফস্টি নস্টি করা, মেয়েদের উড়না টান দিয়া লওয়া, মেয়েদের বুক টিইপ্যা দেওয়া, পেটে কাতুকুতু দেওয়া, পাছায় খামছি মারা, অথবা মেয়েদেরে জোর জবরদস্তি ন্যাংটা করা, বিছনায় ধাক্কা মাইরা শোওয়ানো চিরকালই ওই সমাজে হিরোদের কাজ। হিরোরা পুরুষালি পুরুষ, ওদের শইলে বাঘের শক্তি। মেয়েরা কম শক্তির পুরুষদেরে পছন্দ করে না, যে পুরুষ মেয়েদের কাজ কাম কইরা দেয়, মেয়েরা যা কয় তাই শুনে, মেয়েদেরে ধমকায় না, মারে না, মেয়েদের সাথে নরম স্বরে কথা কয়, লজ্জা পায়, শরম পায়, দুঃখে কষ্টে চোক্ষের পানি ফেলে, তারা নাকি মেয়েলি পুরুষ, তাদের নাকি মেয়েদের পছন্দ না। মাচোদের ভালা পায়।

#মিটু কাজে লাগার জন্য সমাজের মিনিমাম একটা কোয়ালিটি চাই। বাংলাদেশের সমাজের সেই কোয়ালিটি নাই। মানুষদেরও বেসিক সেন্স নাই, যেই সেন্স বলবে মেয়েরা যৌন বস্তু না, মেয়েদের সাথে যা ইচ্ছা তাই করার অধিকার পুরুষের নাই। বাংলাদেশের সমাজের বেশিরভাগ মানুষ বিশ্বাস করে, মেয়েরা যৌন বস্তু, মেয়েদের সাথে সব রকম শয়তানি বদমাইশি করার অধিকার পুরুষদের আছে। মানুষ এও গভীরভাবে বিশ্বাস করে, পুরুষদের যৌন খিদাটা একটু বেশি, তাদের একটু বেশিই খাই খাই। ঘরে বউ রাইখ্যাও তারা বাইরের মেয়েদের সাথে করতে চাইলে করতেই পারে, কইলাম না ওদের আল্লাহ একটু বেশিই ওই কামনা বাসনাগুলা দিছে, ওদের তো দোষ নাই।

মেয়েরা তো ডরায়, ডরানি মেয়েদের ভুষণ। বাচ্চাকাল থেকেই শিখানো হইছে। তারা যদি সত্যিই মুখ খুলতো, তাইলে আমার কিন্তু মনে হয় না, নামী কও অনামী কও, একটাও পুরুষ পাওয়া যাইতো, যে ছেচরামি করে নাই, অচেনা মেয়েদের এইডা ধরে নাই ওইডা ধরে নাই, শইলে গুঁতাগুঁতি করে নাই, আন্ধারে সুযোগ নেয় নাই, খালি ঘর পাইয়া যাইত্যা ধরে নাই, আকাম কুকাম করে নাই। আমার তো মনে হয় যেই পুরুষগুলা মেয়েদের হেনস্থা করছে বলা হইতাছে, তাদের সুখ্যাতি বাড়তাছে। আগে তাদের ছোট গড়িতে হিরো ছিলো, এখন পুরা দেশেই তারা হিরো। #মিটুর জন্য আমার ভয় হইতাসে মেয়েদেরি আবার শরমে মুখ লুকাইতে হয় কিনা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত