প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দৈনিক পত্রিকার যুগাবসান
নিউইয়র্ক টাইমস, ওয়াশিংটন পোস্টের পর এখন পাঠকদের কাছে অর্থ সহায়তা চায় গার্ডিয়ান

আসিফুজ্জামান পৃথিল : খুব দ্রুত ডিজিটালাইজেশনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে এ বিশ্ব। কাগজ উল্টে দৈনিক পত্রিকার চল বদলে মানুষ দিনের সংবাদ পড়ে নিচ্ছে নিজের সেল ফোন কিংবা কম্পিউটারের মনিটরেই। ফলশ্রুতিতে বিজ্ঞাপন এবং পাঠক হারাচ্ছে খবরের কাগজগুলো। বিশেষত যে সকল সংবাদপত্র কোন কর্পোারেট মালিকানায় নেই তাঁদের জন্য টিকে থাকাই মুশকিল হয়ে দাঁড়িয়েছে। এজন্য বিকল্প এক পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছে পশ্চাত্যের সংবাদপত্রগুলো। তারা এখন পাঠক ও শুভাকাঙ্খীদের কাছ থেকে অর্থ সহায়তা চাচ্ছে!

আগেই এ ধরণের কার্যক্রম শুরু করেছিলো নিউইয়র্ক টাইমস, ওয়াশিংটন পোস্ট, লস অ্যাঞ্জেলস টাইমস এর মতো মার্কিন পত্রিকাগুলো। এবার সে পথ অনুসরণ করছে বিখ্যাত ব্রিটিশ সাময়িকি গার্ডিয়ানও। তারা নিজেদের ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞাপনও দিয়েছে। সেখানে তারা বলছে, ‘আমরা আমাদের ১০ লাখ পাঠককে আমাদের পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি। গার্ডিয়ানের স্বাধীন সাংবাদিকতা সকলের জন্য উন্মুক্ত। আপনার সহায়তাই পারে আমাদের কার্যক্রমকে টিকিয়ে রাখতে। আমরা সকলে মিলেই পরিবর্তন আনতে পারবো।’

এদিকে এ উপলক্ষে বিশেষ এক সম্পাদকীয়তে প্রধান সম্পাদক ক্যাথরিন ভিনারও পাঠকদের সহায়তা চেয়েছেন। এদিকে সহায়তা করার জন্য পৃথক একটি ফরম খুলেছে গার্ডিয়ান। এককালিন, মাসিক এবং বার্ষিক ভিত্তিতে এ অর্থ প্রদান করা যাবে। সহায়তার জন্য সর্বনিম্ন অর্থ ধরা হয়েছে ৫ ডলার।