প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমরা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি, প্রহসনের হলে বর্জন : বাম জোট

রফিক আহমেদ : বাম জোটের শীর্ষ নেতা ও বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি’র) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বিপরীত বিকল্প শক্তি গড়ে তোলার জন্য আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছি। নির্বাচন প্রহসন ও তামাশায় পরিণত হলে আমরা নির্বাচন বর্জনও করতে পারি। মঙ্গলবার রাজধানীর পুরানা পল্টন সিপিবির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মৈত্রী মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

সিপিবির সভাপতি বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতৃত্বাধীন দু’জোটে রাজাকার ও স্বৈরাচার রয়েছে। এই দু’দল যখন বিরোধী দলে থাকে- তখন অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য পাগল হয়ে যায়। আর যখন ক্ষমতায় থাকে তখন এ দু’টি দলের নেতারা কিছুই মানে না।

তিনি বলেন, আমরা আন্দোলন না করে একাদশ জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ছিলো ‘নো’ ইলেকশন-এবারের নির্বাচন হচ্ছে ব্যাড ‘ইলেকশন’। আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র গত কয়েকদিন ধরে বিশাল বিশাল নির্বাচনী শো-ডাউন দেখা যাচ্ছে-এটা আমরা পছন্দ করি না।

গণতান্ত্রিক বাম জোটের সমন্বয়ক ও সিপিবির সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম লিখিত বক্তব্যে বলেন, আন্দোলনের এক পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রীসহ ১৪ দলের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে গত ৬ নভেম্বর বাম গণতান্ত্রিক জোটের সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। দেশের অপরাপর রাজনৈতিক দলের সঙ্গেও অনুষ্ঠিত সংলাপ শেষে জানানো হয় যে, সংলাপের বিষয়ে ৮ নভেম্বর সংবাদ সম্মেলন করে প্রধানমন্ত্রী তাদের মতামত জানাবেন। এর মধ্যদিয়ে সংলাপ বিষয়ের পরিসমাপ্তি ঘটবে এবং এরপর নির্বাচনের তারিখ ঘোষিত হবে বলে আমরা আশা করে ছিলাম।

তিনি বলেন, প্রধানমনত্রীর সংবাদ সম্মেলন স্থগিত ও দ্রুত নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা পুরো সংলাপ প্রক্রিয়াকে বিনষ্ট করে ফেললো। অন্য দাবিগুলো গৌণ হয়ে রাজনীতি এখন তফসিল কেন্দ্রিক হয়ে পড়েছে।

সংবাদ সম্মেলণে উপস্থিত ছিলেন- বাম গণতান্ত্রিক জোটের শীর্ষ নেতা সাইফুল হক, অধ্যাপক আবদুস সাত্তার, বাজলুর রশীদ ফিরোজ, মানস নন্দী ও হামিদুল হক প্রমুখ।

সম্পাদনা- শাহীন চৌধুরী

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত