Skip to main content

১২ কোটি টাকায় তাঁত বোর্ডের নতুন গবেষণা প্রকল্প

মোহাম্মদ রুবেল : ঐতিহ্যবাহী ঢাকাই মসলিন আবার ফিরিয়ে আনতে সুতা তৈরির প্রযুক্তি ও মসলিন কাপড় পুনরুদ্ধারে নতুন গবেষণা প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে ৪০০ পাউন্ট সুতার কাপড় তৈরি করা যাবে, পর্যায়ক্রমে আরো বৃদ্ধিপাবে। ইতিমধ্যে প্রাথমিক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যারয়ের জমিতে মসলিন কাপড় তৈরির উপযোগী সুতা তৈরির জন্য কিছু তুলাগাছ লাগানো হয়েছে। তাঁত বোর্ড সূত্রে জানা গেছে। সূত্রে জানা যায়, মসলিনকে ফিরে পেতে তাঁত বোর্ডের নেওয়া এই প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ১২ কোটি ১০ লাখ টাকা। এটি ম‚লত একটি গবেষণা প্রকল্প। মসলিনের প্রযুক্তি উদ্ধারে পুরো অর্থ ব্যয় করা হবে। পুরো প্রকল্পটি ২০১৮ সালের জুলাই থেকে ২০২১ সালের জুনের মধ্যে বাস্তবায়ন করা হবে। তাঁত বোর্ডের এ প্রকল্পের ম‚ল উদ্দেশ্য তিনটি। প্রথমত, নিবিড় গবেষণার মাধ্যমে মসলিনের সুতা ও কাপড় তৈরির প্রযুক্তি পুনরুদ্ধার; দ্বিতীয়ত, পরীক্ষাম‚ল ভাবে মসলিনের সুতা ও কাপড় তৈরি এবং তৃতীয়ত, বাংলাদেশের সোনালি ঐতিহ্য মসলিনের হারানো গৌরব পুনরুদ্ধার। বাংলাদেশ তাঁতবোর্ডেরপরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন প্রধান মো. আইয়ুব আলী আমাদের অর্থনীতিকে বলেন, নতুন গবেষণা প্রকল্পের আওতায় ম‚লত মসলিন কাপড় তৈরির জন্য তুলাগাছ লাগানো হবে। ইতিমধ্যে প্রাথমিক গবেষণার ফলাফলের জন্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মসলিন কাপড় তৈরির উপযোগী সুতা তৈরির জন্য কিছু তুলাগাছ লাগানো হয়েছে। সেসব গাছে ফুলও ধরতে শুরু করেছে। পরবর্ততীতে এই তুলার সুতা থেকেই বুনন হবে মসলিন কাপড়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তাঁতবোর্ডের গবেষণা কর্মকর্তামতিউর রহমান আমাদের অর্থনীতিকে বলেন, ‘একসময় তাঁতিরা নিজস্ব প্রযুক্তিতে মসলিনের সুতা ও কাপড় বুনতেন। এখন আর সেই প্রযুক্তি নেই। এ প্রেক্ষিতেই কয়েক বছর আগে প্রধানমন্ত্রী সেই প্রযুক্তি পুনরুদ্ধারের নির্দেশনা দিয়েছেন। এরপর থেকে তাঁতবোর্ড এ বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে সুতার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এখন অপেক্ষায় আছি রাজশাহীতে রোপনকৃত তুলাগাছ হতে কী ফলাফল আসে। বাংলাদেশ তাঁতবোর্ড, সদস্য, গাজী মো: রেজাইল করিম বলেন, গবেষণাটি প্রকল্পটি বেশ জটিল প্রক্রিয়া। এর সঙ্গে জড়িত ফুটি কার্পাসের নমুনা সংগ্রহ, সনাক্তকরণ, জাতের উন্নয়ন ও ফুটি কার্পাস থেকে সূতা তৈরি এবং সূতা থেকে কাপড় তৈরি এ প্রত্রিয়ার সঙ্গে জড়িত এ প্রকল্পের আওতায় মসলিন সূতা ও কাপড় তৈরির প্রযুক্তি বিষয়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের তাঁতীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।   সম্পাদনায়: শাহীন চৌধুরী, হুমায়ুন কবির খোকন