প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচনের উৎসবে মেতে উঠে বিএনপি
২৫ পার্সেন্ট ফেয়ার ভোটেই জয় সম্ভাবনা দেখছে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা

শিমুল মাহমুদ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শতকরা ২৫ পার্সেন্ট ভোট ফেয়ার হলেও জয় সম্ভাবনা দেখছেন বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের হত্যা, গুম, খুন,হামলা, মামলা এবং বিচারবিভাগ,প্রশাসনকে দলীয়করণ বিষয়টি মানুষের নজরে আসায় জয় অনেকটা নিশ্চিত বলে মনে করছেন তারা।

এছাড়া দীর্ঘ সময় পার্লামেন্টের বাহিরে থাকা এই নেতাকর্মীরা মনে করছেন দেশের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা, মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠায় পার্লামেন্টে থাকা তাদের জন্য খুবেই গুরুত্বপূর্ন তাই জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়তে চায় নেতা কর্মীরা।

মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দ্বিতীয় দিনের মতো মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু করে। সারাদেশ থেকে আশা মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতাকর্মী এবং তাদের কর্মী সমর্থকদের ভীড় থাকে সকাল ৮ টা থেকেই রাত ৭ টা পর্যন্ত। ঢোল তবলার আর বাদ্যযন্ত্রের তালে তালে নেতাকর্মীদের নির্বাচনের উৎসব মুখর এক পরিবেশের সৃষ্টি হয় নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে।

সাতক্ষিরা -৪ আসন থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী এচএম রহমতুল্লাহ(পলাশ) বলেন, আমি সাতক্ষিরা এলাকার প্রার্থী, আমার বাবা এই এলাকার প্রথম এমপি ছিলেন। সাতক্ষিরার বিষয়ে আমি স্পষ্ট বলতে পারি, সাতক্ষিরায় যে চারটি আসন রয়েছে সেখানে শতকরা ৭৫ ভাগ আওয়ামী লীগ বিরোধী।

সুতরাং সেখানে যদি কলাগাছ দাড় করানো হয়,সেই পাস করবে। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন লক্ষ্যে আমরা প্রয়োজনে যুদ্ধ করবো তবুও ভোট চুরি করতে দেবো না।

ঈশ্বরদী পাবনা -৪ আসন থেকে পনোনয়নপত্র কিনেছেন বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব। এসময় তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমাদের আত্ববিশ্বাস হচ্ছে জনগণের উপর। বেগম জিয়া মিথ্যা মামলায় কারাগারে আছেন।

এছাড়া দীর্ঘ দশ বছর হত্যা, গুম, খুন, ছাড়াও বিচারবিভাগ ও প্রশাসনকে দলীয়করণের বিষয়টি মানুষের নজরে এসেছে। তাই আমরা আশা করছি জনগণ যদি ভোট দিতে পারে বিএনপি ক্ষমতায় আসবে।

বরিশাল -৫ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী মজিবুর রহমান সারোয়ার বলেন, আমি এখনো আন্দোলন সংগ্রামে রয়েছি, আর আন্দোলনের অংশ হিসেবেই আমরা নির্বাচনে যাচ্ছি। আমার এলাকার মানুষ চাই আমি আবারো নির্বাচন করি। তাছাড়া গত দশ বছরে জনগণের সাথে কোন বিচ্ছিন্নতার সৃষ্টি হয়নি আমাদের। তবে বিগত দশ বছর পার্লামেন্টের বাহিরে থেকে আমরা বুঝতে পেরেছি দেশের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা ও মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠায় পার্লামেন্টের গুরুত্ব।

জনগণের এক একটা ভোট খালেদা জিয়াকে মুক্ত পথ করতে পারে বলে মন্তব্য করেছে জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক আমিনুল ইসলাম। তিনি বলেন,এই আওয়ামী দুঃশাসন থেকে রুখে দাড়াতে রাজপথে থাকবেন। এবং ভোটের মাধ্যমে এর জবাব দিবেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ