প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইরানি কমান্ডারকে হত্যার সৌদি ষড়যন্ত্র সম্পর্কে আমরা জানতাম: জারিফ

রাশিদ রিয়াজ : ইরানি কর্মকর্তাদের হত্যার সৌদি ষড়যন্ত্র সম্পর্কে ইরান আগে থেকেই জানতো বলে দাবি করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ। লন্ডন ভিত্তিক গণমাধ্যম আল আরাবি আল জাদিদ-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন। জারিফ বলেন, ‘আমাদের কাছে এ বিষয়ে অকাট্য তথ্য রয়েছে।’ মার্কিন পত্রিকা নিউ ইয়র্ক টাইমস’র এ সংক্রান্ত খবরের সত্যতা রয়েছে বলে তিনি জানান।

২০১৭ সালের মার্চে সৌদি আরবের রিয়াদে অনুষ্ঠিত এক বৈঠক থেকে ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র কুদস ব্রিগেডের কমান্ডার মেজর জেনারেল কাসেম সোলায়মানিসহ কয়েক জন ইরানি কর্মকর্তাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হয় বলে নিউ ইয়র্ক টাইমস গত রোববার খবর প্রকাশ করেছে। এর পরই এ বিষয়ে কথা বললেন জারিফ।

ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার সাক্ষাৎকারে সৌদি আরবের অন্যান্য অপকর্মের প্রতি ইঙ্গিতও করেছেন। তিনি বলেছেন, সৌদি আরব সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন দিচ্ছে, ইয়েমেনে আগ্রাসন অব্যাহত রেখেছে, কাতারের ওপর অবরোধ আরোপ করেছে এবং লেবাননের প্রেসিডেন্ট সা’দ হারিরিকে অপহরণ করেছিল। এছাড়া সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা করেছে। এসবই মারাত্মক অপরাধ। গোটা বিশ্বই এসব ঘটনা প্রত্যক্ষ করছে।

মার্কিন দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে ইরানি কর্মকর্তাদের হত্যার সৌদি ষড়যন্ত্র প্রসঙ্গে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের মার্চ মাসে রিয়াদে সৌদি ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করেন সম্প্রতি খাশোগি হত্যাকা-ে পদচ্যুত সৌদি গোয়েন্দা কর্মকর্তা মেজর জেনারেল আহমেদ আল-আসিরি। যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের ঘনিষ্ঠ এই জেনারেল সৌদি ব্যবসায়ীদের বলেন, যেকোনো উপায়ে ইরানের অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দিতে হবে। বৈঠকে এ লক্ষ্যে ২০০ কোটি ডলার বাজেট বরাদ্দ দেয়ার কথা বলা হয়। একইসঙ্গে আসিরি ইরানের আল-কুদস ব্রিগেডের কমান্ডার মেজর জেনারেল কাসেম সোলায়মানিকে হত্যার উপায় নিয়েও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলেন। পারসটুডে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ