Skip to main content

নৌকা নিয়ে কাড়াকাড়ি মা-ছেলে-চাচার

ডেস্ক রিপোর্ট: নাটোর-১ আসন থেকে এবার নৌকার মাঝি হতে চাইছেন মা, ছেলে ও চাচা। শুক্রবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে স্বশরীরে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন মা ও ছেলে। আর শনিবার মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন চাচা। ১৯৮৬ সালের তৃতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী সাবেক সংসদ সদস্য শহীদ মমতাজ উদ্দীনের সহধর্মিণী ও নবম সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাবেক সংসদ সদস্য শেফালী মমতাজ শুক্রবার মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। মনোনয়ন প্রক্রিয়ায় মায়ের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন শেফালী মমতাজের ছেলে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক শামীম আহম্মেদ সাগর। এদিকে সাবেক এমপি শহীদ মমতাজ উদ্দীনের ভাই ও শামীম আহম্মেদ সাগরের আপন চাচা দশম সংসদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত বর্তমান সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল কালাম মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। তারা প্রত্যেকেই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী এবং নৌকা প্রতীকে নির্বাচনে আগ্রহী। মনোনয়ন সংগ্রহের পর তারা আশা প্রকাশ করেন, মনোনয়ন পেলে তারা জয় লাভ করবেন। একই আসনে মা, ছেলে ও চাচার মনোনয়ন সংগ্রহ নিয়ে এলাকায় জোর আলোচনা-সমালোচনা চলছে। এ আসনে ১৯৭৩ সালের প্রথম সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে ডা. আলা উদ্দিন বিজয়ী হন। দ্বিতীয় সংসদ নির্বাচনে আব্দুল মান্নান (বিএনপি) নির্বাচিত হন এবং সংসদের হুইপ নিযুক্ত হন। ১৯৮৬ সালে ৩য় সংসদ নির্বাচনে মমতাজ উদ্দিন (স্বতন্ত্র), ১৯৮৮ সালের ৪র্থ সংসদ নির্বাচনে নওশের আলী সরকার বাদশা (স্বতন্ত্র) নির্বাচিত হন। আর ৫ম থেকে ৭ম পর্যন্ত বিএনপির ফজলুর রহমান পটল নির্বাচিত হন এবং যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত হন। এছাড়া ২০০৮ সালের নবম সংসদে আবু তালহা (জাতীয় পাটি) এবং ২০১৪ সালের দশম সংসদে বর্তমান এমপি আবুল কালাম (আওয়ামী লীগ) বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। সূত্র: যুগান্তর