প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খাসোগজির পরিণতির আশঙ্কা
বন্দি দুই প্রিন্সকে বাচাঁতে তৎপর যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্স

সাইদুর রহমান: তুরস্কের ইস্তাম্বুলে নিহত সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগজির পরিণতির আশঙ্কা করছেন সৌদিতে বন্দি রাজপরিবারের দুই সদস্য সালমান বিন আব্দুল আজিজ বিন সালমান বিন মুহাম্মাদ আল-সালমান ও তার পিতা বলে জানিয়েছে তাদের আইনজীবি হাতেম এলি। খবর আল-জাজিরা

হাতেম আল-জাজিরাকে জানান, সৌদি কর্তৃপক্ষ তাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ উত্থাপন করেনি এবং পরিবারকে তাদের সাথে সাক্ষাতে সুযোগ দিচ্ছে না। এমনকি গত জানুয়ারি থেকে বিচারকের সামনেও উপস্থিত করা হচ্ছে না। রাজ প্রাসাদে একটি বিষয়ে প্রতিবাদ করতে গিয়ে গ্রেফতার হন তিনি।

হাতেম আরও জানান, প্রিন্সদ্বয়ের পরিবার তাকে(হাতেম) গণমাধ্যমে আলোচনা করতে আবেদন করেছেন, যাতে তাদের মুক্তির বিষয়ে চাপ দেয়া যায়। তিনি জানান, তাদের মক্কেলদ্বয়কে গ্রেফতার আন্তর্জাতিক আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন যেহেতু কোনো কারণ ছাড়াই তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

হাতেম জানান, বন্দি প্রিন্সের পিতাকেও গ্রেফতার করা হয়েছে শুধুমাত্র প্যারিসে সন্তানের আইনজীবির সাথে যোগাযোগ করার কারণে। তার পিতা ফ্রাঙ্কফুর্ট আন্তর্জাতিক সংস্থায় কাজ করতেন এবং ফ্রান্সের জাতীয় পদকও লাভ করেছেন। তাদের এক সহযোগীও ফ্রান্সে পলায়ন করেছেন এবং সেখান থেকেই তাদের মুক্তির চেষ্টা চালাচ্ছেন।

হাতেম আরও জানান, প্রথমে তিনি সৌদির কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তিবর্গের সাথে আলোচনা করেছেন (যাদের নাম তিনি উল্লেখ করতে চাননি), কিন্তু এসব প্রচেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এম্যানুয়েল ম্যাক্রোর সাথে যোগাযোগ করেন, তাদের মুক্তির ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করতে।

শুধু ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টই তড়িত হাতেমের আহ্বানের ডাকে সাড়া দিয়েছেন এবং সৌদি কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনার জন্য ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কার্যতালিকায় অন্তর্ভূক্তি করেছেন।

আল-জাজিরা জানিয়েছে, তারা ম্যাক্রোর নির্দেশে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কার্যতালিকাভূক্তি করার চিঠি পেয়ে গেছে। সূত্র: আল-জাজিরা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ