প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করতে আসছেন জোবাইদা রহমান!

রবিন আকরাম : দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত হয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান একাধিক মামলায় সাজা পেয়ে লন্ডনে অনেকটা নির্বাসিত জীবনযাপন করছেন।

শীর্ষ নেতৃত্বের অনুপস্থিতিতে বিএনপির তৃণমূলের নেতাকর্মীরা অনেকটাই দিশাহীন। এমতাবস্থায় দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ রাখতে ও তৃণমূল নেতাকর্মীদের সঠিক দিশা দিতে রাজনীতিতে আসছেন জিয়া পরিবারের অন্যতম সদস্য ও তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান।

সূত্র বলছে,  দলের নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করে নতুন উদ্যমে ভোটের ময়দানে নামাতে এবং দলে জিয়া পরিবারের ঐতিহ্য ধরে রাখতে তারেক রহমানের স্ত্রী জুবায়দা রহমানকে নেতৃত্বে আনার বিষয়টি এক রকম চূড়ান্ত করে ফেলেছে  বিএনপি।

লন্ডনের একটি সূত্র জানিয়েছে, বিষয়টি তারেক রহমানের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছে। তিনি সিদ্ধান্ত জানালে দু-একদিনের মধ্যে জোবায়দা রহমানকে সদস্যপদ দেওয়া হবে।

জানা গেছে, সম্প্রতি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বরচন্দ্র রায় জোবায়দা রহমানকে দলের দায়িত্বে আনতে তারেক রহমানের কাছে বার্তা পাঠিয়েছেন।

অন্যদিকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকায় বলা হয়েছে, প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার পুত্রবধূর অভিষেক কেবল সময়ের অপেক্ষা।

বিএনপি-র শীর্ষ সূত্রে জানা গিয়েছে, সিলেট বা বগুড়া থেকে প্রাথমিক সদস্যপদ দিয়ে জুবায়দাকে আপাতত দলের ভাইস চেয়ারম্যান করার পরিকল্পনা রয়েছে। নির্বাচনী কাজে সমন্বয়ের দায়িত্বও তাঁর হাতে ছাড়ার কথা ভাবা হয়েছে। আপাতত অস্থায়ী চেয়ারম্যান তারেকের নির্দেশ অনুযায়ী তিনি দল চালাবেন।

তবে মনোনয়ন পত্রে সই করা হয়তো এ বারও জুবায়দার পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না। তাঁর পাসপোর্ট আপাতত লন্ডনে বাংলাদেশি হাই কমিশনের হাতে থাকায় ঢাকা ফিরতে সময় লাগবে। সে জন্য প্রচারের মঞ্চ থেকে তাঁর ভিডিয়ো-বক্তৃতা প্রচারের কথাও ভেবে রেখেছেন বিএনপি নেতৃত্ব।

প্রসঙ্গত, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমানের রাজনীতিতে আসার গুঞ্জন নতুন নয়। বহুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে জিয়া পরিবারের এ সদস্য বিএনপির রাজনীতির হাল ধরবেন। তবে এখনও পর্যন্ত জিয়া পরিবারের কেউ এ বিষয়ে কিছুই বলেননি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ