প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে  : আহমদ আজম খান

লিয়ন মীর : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আহমদ আজম খান অভিযোগ করে বলেছেন, অবাধ, সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের ক্ষেত্র তৈরি করতে নির্বাচন কমিশন ব্যর্থ হয়েছে। তার একটা নমুনা হচ্ছে- নির্বাচনি তফসিল ঘোষণার পরেও সারাদেশে গায়েবি মামলা অব্যাহত আছে। বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গণগ্রেপ্তার এখনো বন্ধ হয়নি। ঢালাওভাবে তাদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। একইসঙ্গে রিমান্ড অব্যাহত আছে। কাজেই নির্বাচন কমিশন তার সুষ্ঠু দায়িত্ব পালন করতে পারছে না। তারা শুধু কথার মধ্যেই সীমাবদ্ধ আছে।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্যই জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সাত দফা দিয়েছিলো। এই সাত দফা কোনো ব্যক্তি এবং গোষ্ঠীর স্বার্থের জন্য নয়। পুরোটাই একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য। কিন্তু সাত দফার এক দফাও সরকার মেনে নেয়নি এবং সরকারের ইচ্ছেয় নির্বাচন কমিশন তড়িঘড়ি করে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে। সরকারের ইচ্ছেয় তফসিল ঘোষণায় নির্বাচন কমিশন পুরো জাতিকে হতাশায় ডুবিয়েছে। এখন আমাদের দাবি, নির্বাচনের তারিখ একমাস পিছিয়ে দিতে হবে।  তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশনের সদিচ্ছা ব্যতীত সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। কিন্তু নির্বাচন কমিশন সরকারের হয়ে কাজ করছে। এই নির্বাচন কমিশন সরকারের আজ্ঞাবহ। সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে। এই অবস্থায় জাতি উদ্বিগ্ন- কী হচ্ছে, কী হতে যাচ্ছে? জনগণের ভোট ও মতামতের প্রতিফলন দেখা যাবে নির্বাচনের ফলাফলে? গণমানুষের সংসদ এবং সরকার হবে, নাকি ভোট দখলের নির্বাচন হবে? এই সংশয় এখন উদ্বিগ্ন গোটা জাতি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ